প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মাঝে মাঝে খালি পায়ে হাঁটা সুন্নত

সাআদ তাশফিন: মাঝে মাঝে খালি পায়ে হাঁটা স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। রাসুলুল্লাহ (সা.) সাহাবায়ে কেরামকে মাঝে মাঝে খালি পায়ে হাঁটার নির্দেশ দিয়েছেন।

আবদুল্লাহ ইবনে বুরাইদাহ (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুল (সা.)-এর এক সাহাবি মিসরে অবস্থানরত ফাদালাহ ইবনে উবাইদ (রা.)-এর কাছে পৌঁছেন। অতঃপর তিনি বলেন, আমি শুধু আপনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে আসিনি; বরং আমি ও আপনি যে হাদিসটি রাসুলুল্লাহ (সা.)-এর কাছে শুনেছি, আশা করি এ সম্পর্কে আপনার কিছু জানা আছে। তিনি বলেন, তা কোন বিষয়ে? তিনি বলেন, এরূপ : আপনি একটি স্থানের নেতা, অথচ আপনার মাথায় চুল উষ্কখুষ্ক দেখছি? সাহাবি বলেন, রাসুলুল্লাহ (সা.) আমাদের মাত্রাতিরিক্ত জাঁকজমক দেখাতে নিষেধ করেছেন। তিনি (ফাদালাহ) বলেন, আপনার পায়ে জুতা দেখছি না কেন? তিনি বলেন, নবী (সা.) আমাদের মাঝে মাঝে খালি পায়ে চলার আদেশ দিতেন। (আবু দাউদ, হাদিস : ৪১৬০)

উল্লিখিত হাদিস দ্বারা বোঝা যায়, রাসুল (সা.)-এর নির্দেশনা পালনের উদ্দেশ্যে মাঝে মাঝে খালি পায়ে হাঁটা সুন্নত। এতে মানুষের আত্ম-অহমিকা কিছুটা সংবরণ হয়। তা ছাড়া এটি মানুষের স্বাস্থ্যের জন্য অত্যন্ত উপকারী। এভাবে মহান আল্লাহ রাসুল (সা.)-এর বিভিন্ন সুন্নতে কল্যাণ রেখে দিয়েছেন।

বিশেষ করে আমাদের দেশের মানুষের জন্য খালি পায়ে হাঁটা বেশি উপকারী। ভোরবেলা সবুজ ঘাসে খালি পায়ে হাঁটার উপকারিতা নিয়ে বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় অনেক প্রবন্ধ পাওয়া যায়। নিম্নে সেরকম একটি প্রবন্ধের অংশবিশেষ তুলে ধরা হলো—

শরীর ও মন ভালো থাকে : খালি পায়ে ঘাসের ওপর দিয়ে হাঁটলে দেহের উপকার হয় এবং শরীর ও মন দুটিই ভালো থাকে। তা ছাড়া ওজন কমাতে ও সুস্থ থাকতে হাঁটা সবচেয়ে ভালো শরীরচর্চা।

দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধি করে : ঘাসের ওপর খালি পায়ে হাঁটলে দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধি পায়। এ ছাড়া চোখের স্বাস্থ্যের জন্য সবুজ রং খুব উপকারী। তাই চোখের সুস্থতার জন্য প্রতিদিন সকালে ঘাসের ওপর দিয়ে হাঁটা উচিত।

পা সুস্থ রাখে : পায়ের জন্য খুব ভালো ব্যায়াম হচ্ছে খালি পায়ে হাঁটা। এর ফলে পায়ের শক্তি বৃদ্ধি পায়, পেশি মজবুত হয়, পায়ের রগ ও লিগামেন্ট, গোড়ালি ও পায়ের পাতার শক্তি বৃদ্ধি পায়। খালি পায়ে ঘাসের ওপর হাঁটলে কোনো কোনো আঘাত নিরাময় হয়, হাঁটুর সমস্যা ভালো হয়, পিঠের সমস্যাও ভালো হয়ে যায়।

স্ট্রেস দূর করে : ভোরবেলা খালি পায়ে ঘাসের ওপর হাঁটলে মন খুব শান্ত থাকে। সকালে হাঁটার মাধ্যমে আমরা ফ্রেশ অক্সিজেন গ্রহণ করি। সকালের শান্ত পরিবেশ আমাদের মন ভালো রাখে।

দেহে ভিটামিন ডি জোগায় : খালি পায়ে ঘাসের ওপর দিয়ে হাঁটলে সূর্যের রশ্মি আমাদের দেহে ভিটামিন ডি জোগায়, ভিটামিন ডি আমাদের দেহের হাড় মজবুত করে এবং হাড়ের যেকোনো সমস্যা রোধ করতে সাহায্য করে। তাই সুস্থ থাকতে সকালের অথবা বিকেলের মৃদু রোদে খালি পায়ে ঘাসের ওপর হাঁটা সবারই উচিত। করোনার এই যুগে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য অনেক বিশেষজ্ঞই সকালের সূর্যের আলোয় হাঁটাহাঁটি করার পরামর্শ দেন।

তাই আমাদের প্রত্যেকের উচিত ভোরবেলা ফজরের নামাজের পর কিছুক্ষণ সবুজ ঘাসের ওপর খালি পায়ে হাঁটার চেষ্টা করা। এতে আমরা প্রিয় নবী (সা.)-এর একটি সুন্নত পালনের সওয়াব যেমন পাব, পাশাপাশি এটি আমাদের সুস্বাস্থ্যের জন্যও সহযোগী হবে।

সূত্র : কালের কণ্ঠ

সর্বাধিক পঠিত