প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] নির্দেশনা অমান্য করে করোনা সনদ ছাড়া যাত্রী আনলো ৯ এয়ারলাইন্স

তাপসী রাবেয়া: [২] বাংলাদেশে আসতে করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট বাধ্যতামূলক করেছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। তবে করোনা নেগেটিভ সনদ ছাড়াই বাংলাদেশে যাত্রী নিয়ে এসেছে এয়ারলাইন্সগুলো। এয়ারলাইন্সগুলোকে মৌখিকভাবে সতর্ক করেছে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। একইসঙ্গে ব্যবস্থা নিতে ৯ এয়ারলাইন্সের তালিকা বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের কাছেও পাঠানো হয়েছে। বাংলাট্রিবিউন, বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

[৩] সূত্র জানায়, ওই ৯টি এয়ারলাইন্স হচ্ছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স, সালাম এয়ার, কুয়েত এয়ারওয়েজ, সৌদি অ্যারাবিয়ান এয়ারলাইন্স, এমিরেটস, এয়ার এশিয়া, এয়ার অ্যারাবিয়া, গালফ এয়ার ও তার্কিশ এয়ারলাইন্স। ৫ ডিসেম্বর কার্যকর হওয়ার পর ৯টি এয়ারলাইন্স দুদিনে নেগেটিভ সার্টিফিকেটবিহীন ৪৩৩ জন যাত্রী বাংলাদেশে নিয়ে এসেছে। বিমানবন্দর থেকে যাত্রীদের সবাইকে সরকারিভাবে কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে।

[৪] বেবিচকের সদস্য (ফ্লাইট স্ট্যান্ডার্ড অ্যান্ড রেগুলেশন্স) গ্রুপ ক্যাপ্টেন চৌধুরী মো. জিয়াউল কবীর স্বাক্ষরিত নির্দেশনায় বলা হয়েছে, বাংলাদেশ আসতে হলে সকল যাত্রীকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে পিসিআর ল্যাবে করোনা পরীক্ষা করতে হবে এবং নেগেটিভ যাত্রীরাই আসতে পারবেন। বিমানবন্দরে সেই নেগেটিভ সার্টিফিকেট দেখাতে হবে।

[৫] বাংলাদেশি শ্রমিকদের মধ্যে যাদের বিএমইটি কার্ড আছে, তারা যে দেশ থেকে আসবেন সে দেশে পিসিআর ল্যাবে করোনা পরীক্ষার ব্যবস্থা সহজলভ্য না হলে অ্যান্টিজেন টেস্ট বা অন্য কোনও গ্রহণযোগ্য পরীক্ষার সনদ নিয়ে দেশে আসতে পারবেন।

[৬] বাহরাইন, চীন, সৌদি আরব, কুয়েত, মালয়েশিয়া, মালদ্বীপ, ওমান, কাতার, শ্রীলংকা, সিঙ্গাপুর, তুরস্ক, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও যুক্তরাজ্যে চলাচল করা ফ্লাইটের ক্ষেত্রে করোনা মহামারির মধ্যে এ নির্দেশনা কার্যকর হবে ৫ ডিসেম্বর থেকে।

[৭] হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এ এইচ এম তৌহিদ উল আহসান বলেন, আমারা এয়ারলাইন্সগুলোকে মৌখিকভাবে সতর্ক করেছি। একইসঙ্গে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের কাছে এয়ারলাইন্সগুলোর নামের তালিকাও পাঠানো হচ্ছে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য।

সর্বাধিক পঠিত