প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত থাকছে না সায়েন্স-আর্টস-কমার্স বিভাগ বিভাজন
[২] ২০২২ সাল থেকে ধারাবাহিক বাস্তবায়নের পরিকল্পনা: প্রফেসর মশিউদ্দিন

শরীফ শাওন: [৩] জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) সংশ্লিষ্টরা বলেন, সাইন্স, আটর্স ও কর্মাস বিভাগের বিষয়গুলো গুচ্ছ আকারে ছিলো। নতুন প্রস্তাবনায় এসকল বিভাগের সকল বিষয়কে উন্মুক্ত রাখা হয়েছে। একাদশ শ্রেণি থেকে শিক্ষার্থীরা চাহিদা অনুযায়ী যে কোন ৩টি বিষয় নৈর্বাচনিক হিসেব এবং একটি ঐচ্ছিক বিষয় পছন্দ করতে পারবে।

[৪] দশম শ্রেণি পর্যন্ত বাধ্যতামূলক ১০ টি বিষয়ে পড়ানো হবে। এর বাইরে কোন বিষয় সংযোজন বা বিয়োজনের সুযোগ থাকবে না। বাংলা, ইংরেজি, গণিত, বিজ্ঞান ও সামাজিক বিজ্ঞান এই ৫টি বিষয়ের বার্ষিক বা পাবলিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বাকিগুলো প্রতিষ্ঠানভিত্তিকভাবে মূল্যায়ন করা হবে। রেজাল্টের ক্ষেত্রে সকল বিষয়ের ফল যোগ করা হবে।

[৫] এনসিটিবি সদস্য প্রফেসর মশিউদ্দিন বলেন, ২০২১ সালে ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে এই শিক্ষাক্রম চালু করার কথা থাকলেও করোনার কারণে তা সম্ভব হয়নি। ফলে পরিকল্পনা অনুযায়ী ২০২২ সালে ষষ্ঠ, সপ্তম শ্রেণি, ২০২৩ সালে অষ্টম, ২৪ সালে নবম এবং ২৫ সালে দশম শ্রেণিতে নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবান করা হবে।

[৬] তিনি বলেন, সকলের মতামতের ভিত্তিতে প্রস্তাবনাটি চূড়ান্ত করতে আমাদের ওয়েবসাইটে ৫-২০ নভেম্বর রাখা হয়েছে। সরকারি অনুমোদনের জন্য কমিটির সঙ্গে আলোচনা সভা চেয়েছি। সেখানে উপস্থাপন করা হবে।

[৭] দশম শ্রেণির আগে পাবলিক পরীক্ষার বিষয়ে আমাদের আগ্রহ ছিলো না, এখনো নেই। সরকারের নির্বাহি আদেশে জেএসসি বা পিএসসি অনুষ্ঠিত হয়।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত