প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য প্রতিষ্ঠা ঠেকানোর ক্ষমতা কারো নেই: মাহবুব উল আলম হানিফ

সমীরণ রায় : [২] আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, স্বাধীন দেশে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য্য হবেই। কোনো অপশক্তি নেই, এটা প্রতিহত করবে। যারা এই ভাস্কর্য্যের বিরুদ্ধে কথা বলবেন, তাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্র আইনী ব্যবস্থা নেবে। ভাস্কর্য্য নিয়ে কিছু আলেম ওলামা মাশায়েখ উগ্র কথা বলছেন। তারা নাকি ইসলামের ধারক-বাহক। ইসলামে জঙ্গিবাদ, মৌলবাদের স্থান নেই। ইসলাম শান্তির ধর্ম। অথচ তারা শান্তির ভাষায় কথা বলছে না। তাদের যে উগ্রতা, সেটি ইসলামের কথা হতে পারে না।

[৩] তিনি বলেন, ওলামা মাশায়েখরা কোন ইসলামের কথা বলছেন? আপনাদের এই ভাষা জনগণ বরদাশত করবে না। আপনারা ধর্মের নামে অপব্যাখ্যা দিয়ে উগ্র-জঙ্গিবাদী কথা বলছেন।

[৪] মাহবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, এ দেশে সরকার ও জনগণ আছে। তাদের শক্তি সম্পর্কে আপনাদের অবহিত থাকতে হবে। উগ্রবাদী-সন্ত্রাসী ও জঙ্গিবাদী কথা বলে শ্রদ্ধা ধরে রাখতে পারবেন না। জনগণ বরদাশত করবে না। পাকিস্তানের প্রেতাত্মা রাজাকারদের হুমকী শোনার জন্য এদেশ স্বাধীন হয়নি। অযথা মাঠ গরম করার চেষ্টা করবেন না। ইন্দোনেশীয়া, সৌদিআরব, ইরান, জর্দান এমনকি পাকিস্তানসহ পৃথিবীর বিভিন্ন মুসলিম দেশগুলোতে ভাস্কর্য্য রয়েছে। এসব দেশে ভাস্কর্য্য নিয়ে কেউ কথা বলে না।

[৬] হানিফ বলেন, প্রয়াত মেয়র মোহাম্মদ হানিফ এতো বড় মাপের নেতা হয়েও সব সময় নিজেকে দলের একজন কর্মী বলেই পরিচয় দিতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করতেন। ওনার কাছে বিনয় শেখার আছে। তিনি ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মুখে প্রিয় নেত্রীকে মানবঢাল করে যেভাবে রক্ষা করেছেন, তা দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

[৭] শনিবার বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ আয়োজিত প্রয়াত মোহাম্মদ হানিফের স্মরণসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত