প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কোভিড পরবর্তী অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে দরিদ্রদের যুক্ত করতে বললেন পোপ

রাশিদ রিয়াজ : পোপ ফ্রান্সিস ভোগবাদের কঠোর সমালোচনা করে বলেন ভিন্ন ধারার অর্থনীতি গড়ে তুলতে দরিদ্রদের এ পুনর্গঠনে যুক্ত করা উচিত। পোপ এমন এক সময়ে এ আহবান জানালেন যখন জাতিসংঘ এক প্রতিবেদনে বলছে কোভিডের কারণে বিশে^ চরম দরিদ্রের সংখ্যা আরো ১৩০ মিলিয়ন বা ১৩ কোটি বেড়ে যাবে। অর্থনীতিবিদদের নতুন ধারার মডেল তৈরিতে তাতে দরিদ্রদের সম্পৃক্ত করার পরামর্শ দিয়ে পোপ বলেন ব্যবসায়ী নেতাদের উচিত বিনিয়োগ বা উন্নয়নে এমন ধারা সৃষ্টি করা যাতে দরিদ্র মানুষ আরো বেশি কাজের সুযোগ পায়। বিশেষ করে তরুণ অর্থনীতিবিদ, উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ী নেতাদের এক্ষেত্রে এগিয়ে এসে প্রচলিত অর্থনৈতিক ধারার বিপরীতে পৃথক ধারা সৃষ্টি করতে হবে। তাদের সৃষ্টিশীল মেধা কাজে লাগাতে হবে। ইতালির আসিসি’র ব্যবসায়ী নেতাদের এক অনুষ্ঠানে পোপ ফ্রান্সিস বক্তব্য রাখছিলেন। ডেইলি মেইল/আরটি

পোপ বলেন, ভবিষ্যতে যেন আমাদের নিন্দার শিকার না হতে হয় কারণ শুধু নিজের লাভের মধ্যে সীমাবদ্ধ থেকে অনুকূল পরিস্থিতিকে কাজে লাগিয়ে মানবিক, সামাজিক দায়িত্ব থেকে দূরে সরে গেলে চলবে না। কোভিড সংকটের সময় সমাজের প্রান্তিক মানুষেরা সবচেয়ে বেশি ক্ষতির শিকার হয়েছে। তাই আমাদের অর্থনৈতিক উন্নয়ন কাঠামোর মধ্যে দরিদ্রদের নিয়ে আসতে হবে, আমাদের আলোচনায় তারা যেন উপস্থিত থাকে কারণ ক্ষুধা মেটানোর মত খাবার টেবিলে থাকার মর্যাদা তাদেরও রয়েছে। দরিদ্রদের জন্যে কল্যাণ নিশ্চিত করতে হলে আমাদের নীতিমালা ও সমাজ ব্যবস্থায় দরিদ্রদের অগ্রাধিকার দিয়ে অর্থনীতিতে বড় ধরনের রুপান্তর আনতে হবে। পোপ বলেন শুধুমাত্র লাভের দিকে নজর বন্দী করে রাখার অর্থনৈতিক মডেল অবিলম্বে এড়িয়ে যাওয়ার সময় এসেছে।

এদিকে ইউএন কনফারেন্স ফর ট্রেড এন্ড ডেভলপমেন্ট বা আঙ্কটাডের সম্মেলনে বলা হয়েছে কোভিডের কারণে বিশ^ অর্থনীতি সঙ্কুচিত হবে ৪.৩ শতাংশ। আঙ্কটাডের প্রতিবেদনে বলা হয় প্রচলিত বিশ^ অর্থনীতির ধারায় দরিদ্রদের জন্যে অবদান রাখার সুযোগ আংশিক হয়ে রয়েছে যাতে বড় ধরনের রদবদল করে তাদের সম্পদের ব্যবহার করার সুযোগ দেয়া প্রয়োজন। আঙ্কটাডের মহাসচিব মুখিসা কিতুয়ি বলেন কোভিডে বিশ^ অর্থনীতির গুরুতর ক্ষতি সাধিত হয়েছে যেখানে ধনী-গরিব উভয়েই লোকসানে পড়েছেন। লাখ লাখ মানুষ কাজ হারিয়েছে। কোটি মানুষের জীবন জীবিকা বিপন্ন। পরিস্থিতির দ্রুত পরিবর্তন না হলে ১৩ কোটি মানুষ দরিদ্র থেকে দরিদ্রতর হয়ে পড়বে। উন্নয়নশীল দেশের চেয়ে উন্নত দেশগুলো বেশি ক্ষতির শিকার হবে। এক্ষেত্রে উন্নত দেশগুলোর অর্থনীতিতে মাইনাস ৫.৮ শতাংশ ক্ষতি হলেও উন্নয়নশীল দেশগুলোর ক্ষতি হবে মাইনাস ২.১ শতাংশ। অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে উন্নত দেশগুলো উন্নয়নশীল দেশগুলোর চেয়ে পিছিয়ে আছে। এক্ষেত্রে উন্নত দেশগুলোর অর্থনীতি আগামী বছরে প্লাস ৩.১ শতাংশ পুনরুদ্ধার হলেও উন্নয়নশীল দেশগুলোর এগিয়ে থাকবে ৫.৭ শতাংশে।

সর্বাধিক পঠিত