প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কুয়াশাচ্ছন্ন হওয়ায় দেখা মিলছেনা কাঞ্চনজঙ্ঘার, খালি নেই পঞ্চগড়-তেতুলিয়ার আবাসিক হোটেল

ইসমাঈল ইমু : [২] তেতুলিয়ায় দিনদিন পর্যটকদের ভীর বাড়ছে- অসংখ্য পর্যটকের আনাগোনা হওয়ায় রাত যাপনের জন্য সরকারি ও বেসরকারি আবাসিক সংকট থাকায় চলে যেতে হচ্ছে দুর থেকে দুরান্তরে। একই অবস্থা পঞ্চগড় জেলায়ও। সেখানকার কোনো আবাসিক হোটেল খালি নেই।

[৩] এই পাহাড় দেখতে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রতেদিনই ভীড় করছে অসংখ্য মানুষ। তবে ঘন কুয়াশার কারণে কাঞ্চনজঙ্ঘা পাহাদের দেখা মিলছেনা। স্থানীয়রা বলছেন, গত কয়েকদিন ধরে এ অবস্থা চলছে। তবে গত সপ্তাহে কুয়াশা কম ছিল। বর্তমানে এই পাহাড় দেখতে পঞ্চগড় ও তেতুলিয়া এলাকায় কয়েক লাখ পর্যটক অবস্থান করছে।

[৪] দেশের একমাত্র উত্তরের সীমান্তবর্তী জেলা পঞ্চগড় হতেই সুস্পষ্ট কাছ থেকে দেখা মেলে পৃথিবীর সুউচ্চ এ দুই পর্বতশৃঙ্গ। চলতি মৌসুমের প্রথমাবস্থায় মেঘমুক্ত আকাশে হিমালয়-কাঞ্চনজঙ্ঘা দৃশ্যমান ছিল। বেশকিছুদিন ধরে কুয়াশা বাড়ায় হতাশ পর্যটকরা।

[৫] কেউ আবহাওয়ার খবর নিয়ে আসছেন, কেউ খবর না নিয়েই আসছেন। এতে করে প্রচুর পর্যটকের সমাগমের ভীড় লক্ষ্য করা গেছে। এ সমাগমে ব্যস্ত হয়ে উঠেছে হোটেল-রেস্তোরা। ব্যস্ত হয়ে উঠেছে দু ও তিন চাকার ভ্যান আর অটোরিকশার মতো যানগুলো।

[৬] পৃথিবীর দৃতীয় উচ্চতম পর্বতশৃঙ্গ কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখতে সারা পৃথিবী থেকে সিকিম নেপাল ও পশ্চিমবঙ্গে ভীড় জমান। কাঞ্চনজঙ্ঘা মূলত হিমালয় পর্বতমালার পর্বতশৃঙ্গ। মাউন্ট এভারেস্ট ও কেটু’র পরে এটি পৃথিবীর তৃতীয় উচ্চতম পর্বতশৃঙ্গ। যার উচ্চতা ২৮হাজার ১৬৯ ফুট বা ৮হাজার ৫৮৬ মিটার। ভারতের সিকিম রাজ্যের সঙ্গে নেপালের পূর্বাঞ্চলীয় সীমান্তে অবস্থিত নান্দনিক টুরিস্ট স্পট কাঞ্চনজঙ্ঘা। পশ্চিমবঙ্গের বহু জায়গা থেকেই দেখা যায় পাহাড়ের রানী কাঞ্চনজঙ্ঘা।

[৭] রঙ বদলায়, দৃষ্টি মোহিত করে শুভ্র সাদা বরফে আচ্ছাদিত পর্বতমালা কাঞ্চনজঙ্ঘা। কাঞ্চনজঙ্ঘার ওপর সূর্যোদয়ের দিনের প্রথম সূর্যকিরণের সৌন্দর্যের ঝিলিক মারে। ভোরে উষার সময় কাঞ্চনজঙ্ঘার ওপর রোদ পড়ে সেই রোদ যেন ঠিকরে পড়ে দু’চোখে। দিনের স্বচ্ছ রৌদ্র আলোয় দেখা মেলে হিমালয়ের সর্বোচ্চ পর্বত কাঞ্চনজঙ্ঘার নানা রূপ। একই অঙ্গে অনেক রূপ এই কাঞ্চনজঙ্ঘার। প্রথমে কালচে, এরপর ক্রমান্বয়ে টুকটুকে লাল, কমলা, হলুদ এবং সাদা রং ধারণ করে।

[৮] যারা পাসপোর্টÑভিসার অভাবে নেপালের হিমালয় আর ভারতে সিকিমে কাঞ্চনজঙ্ঘা পাহাড় দেখার সুযোগ হয় না। তাদের জন্য বিনা পাসপোর্ট ছাড়াই দেশের মাটিতে দাঁড়িয়ে খুব কাছ হতে দেখার সুযোগ রয়েছে। প্রয়োজন হয় না দূরবীন বা কোন বাইনোকুলারের। খালি চোখেই কাছ হতে দেখা যায় দেশের উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়। প্রতিবেশী দেশ ভারত কাঁটাতারে ঘিরে রাখলেও সীমান্ত থেকে খুব কাছ থেকেই কাঞ্চনজঙ্ঘা আর নেপালের আকাশচুম্বী হিমালয় পর্বত।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত