প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] যশোরে পিকআপ চুরির ঘটনায় মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক : [২] যশোর শহরতলীর রামনগর থেকে একটি মাহেন্দ্র কোম্পানীর ব্লোরো পিকআপ চুরির ঘটনায় কোতয়ালি থানায় মামলা হয়েছে। বাঘারপাড়া উপজেলার রুস্তমপুর গ্রামের আব্দুস সামাদের ছেলে শামিম হাসান (৩২) বাদি হয়ে ২১ নভেম্বর দিবাগত রাতে মামলা করেন। মামলায় একজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত নামা কয়েকজনকে আসামি করা হয়। আসামি হচ্ছে বাঘারপাড়া উপজেলার জামালপুর গ্রামের মোজাহার আলীর ছেলে বর্তমানে রামনগর বিহারি ক্যাম্প আর আর এফ অফিসের পাশে সাত্তার মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া হাসানুর হোসেন ড্রাইভারসহ অজ্ঞাত নামা কয়েকজন।

[৩] মামলায় বাদি অভিযোগ করেছেন, আমার একটি মহেন্দ্র কোম্পানির ব্লোরো পিকআপ যার ইঞ্জিন নং-জিএইচজেআইডি২৬১৬৪। চেচিস নং-এমএআইজেডএন২জেএইচকেজে১ডি৩৭৮৮। রেজিষ্ট্রেশন নং-ঢাকা মেট্রো ন-১৫-০৯৩৯। পিকআপটির আনুমানিক মূল্য ৪ লাখ ২৫ হাজার টাকা। পিকআপটি ড্রাইভার হাসানুর হোসেন চালাতো। পিকআপটি চালানো শেষে প্রতিদিনের মতো ১২ নভেম্বর রাত আনুমানিক ৮ টা দিকে রামনগর বিহারি ক্যাম্প রেজাউল মিস্ত্রির মোটর গ্যারেজের সামনে রেখে ড্রাইভার হাসানুর বাড়ি যায়। পরের দিন বেলা আনুমানিক ১২ টার দিকে ড্রাইভার হাসানুর রেজাউল মিস্ত্রির গ্যারেজের সামনে গাড়ি নিতে যেয়ে দেখে গাড়িটি নেই। হাসানুর গাড়িটি না পেয়ে আমাকে ফোন করে জানায়। গাড়িটি চুরি হয়েছে খবর শুনে আমিসহ আমার লোকজন বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুজি করি। একপর্যায়ে বিশ্বস্ত সূত্রে জানতে পারি ড্রাইভার হাসানুর হোসেন গাড়ি চুরির খবর দেয়ার আগে অসৎ উদ্দেশ্যে ঘটনার দিন ভোরে ঝিকরগাছার লাউজানি বাজারে অজ্ঞাত আসামিকে গাড়ি দেখায়।

[৪] গাড়িতে লাগানো জিপিআরএসের মাধ্যমে দেখা যায় ঘটনার দিন ভোর আনুমানিক ৪ টা ৩৫ মিনিটে আসামি হাসানুর হোসেনের সহযোগি অজ্ঞাত আসামি রেজাউল মিস্ত্রির মোটর গ্যারেজের সামনে থেকে গাড়িটি চালিয়ে উপশহর হয়ে পালবাড়ি, চাঁচড়া মোড় দিয়ে বেনাপোল সড়ক দিয়ে ঝিকরগাছার লাউজানি বাজারে যেয়ে জিপিআরএসর সংযোগ বিছিন্ন করে। আসামি হাসানুর হোসেন কৌশলে সহযোগি অজ্ঞাত আসামির যোগসাজসে রেজাউল মিস্ত্রির গ্যারেজে থেকে গাড়িটি নিয়ে ঝিকরগাছার লাউজানি বাজারে বিক্রি করে দেয়। পিকআপ চুরির বিষয়ে জানতে চেয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হারুনর রশিদের ০১৭৩৭৩০০২১৭ নম্বরে ফোন দিলে তিনি মোবাইল কেটে দেন। সম্পাদনা : জেরিন আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত