প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভ্যাকসিন আবিষ্কার ও সফলতার খবরে বিশ্বজুড়ে বেড়ে গেছে ড্রাই আইসের বিক্রি

আসিফুজ্জামান পৃথিল: [২] যে কোনও ভ্যাকসিনকেই শীতল পরিবেশে রাখতে হয়। বিশেষত ফাইজারের নতুন করোনা ভ্যাকসিনের জন্য প্রয়োজন অস্বাভাবিক নিম্ন তাপমাত্রার। যা উন্নয়নশলি দেশগুলোর জন্য একটি বড় ইস্যু। এমনকি উন্নত বিশ্বের গ্রামীণ এলাকাগুলোতে এই তাপমাত্রা নিশ্চিত করা অসম্ভব। সিএনএন

[৩] বিশ্বের ওষুধ কোম্পানিগুলো যেমন নিজেদের ভ্যাকসিনকে নিরাপদ প্রমাণের জন্য পিআর ক্যাম্পেইন করছে তেমনি সরবরাহকারীরা ভ্যাকসিন সংরক্ষণ করার পদ্ধতি নিয়ে ভাবতে শুরু করেছে সরবরাহকারীরা। তারা বলছেন এখনই এই নিয়ে না ভাবলে কোল্ড চেইন মেনে চলা একটি অসম্ভব ব্যাপার হয়ে দাঁড়াবে। এনবিসি

[৪] পশ্চিমা দেশগুলোর যেসব কোম্পানি ড্রাই আইস বানায়, তারা আগাম অর্ডার নিতে শুরু করেছে। এই ড্রাই আইস ব্যাক্সিন কন্টেইনারে রাখলে বহুক্সণ তা ঠাণ্ডা থাকে। ফলে ডোজগুলো পায প্রয়োজনয়ি নিম্ন তাপমাত্রা।

[৫] প্রথমে চুনাপাথর থেকে বিক্রিয়ার মাধ্যমে আলাদা করা হয় কার্বন-ডাই-অক্সাইড। এরপর এটিকে উচ্চচাপ ও নিম্ন তাপমাত্রায় জমাট বরফে পরিণত করা হয়। এই শীতল বস্তুটিই ড্রাই আইস বলে পরিচিত।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত