প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ‘রোনালদো ও নেইমারের পর এবার মেসির বার্সা ছাড়ার জন্য প্রস্তুত লা লিগা’

স্পোর্টস ডেস্ক : [২] নেইমার বার্সেলোনা ছেড়েছেন তিন বছর হলো। ৯ বছরের সম্পর্ক ছিন্ন করে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো রিয়াল মাদ্রিদকে বিদায় বলেছেন দুই বছর আগে। দুই নক্ষত্রকে হারালেও লা লিগার বর্ণিল আভা কমেনি। গত বছর স্পেনের শীর্ষ ফুটবল প্রতিযোগিতার প্রধান হাভিয়ের তেবাস কারণ ব্যাখ্যা করেছিলেন এভাবে, রোনালদো, নেইমার অপ্রয়োজনীয়। কিন্তু মেসি প্রয়োজনীয়, সে লা লিগার ঐতিহ্য। এক বছর যেতে মত পাল্টে গেলো লা লিগা প্রেসিডেন্টের।

[৩] স্প্যানিশ শীর্ষ প্রতিযোগিতা থেকে গত কয়েক বছরে বেশ কয়েকজন বড় মাপের খেলোয়াড় বিদায় নিয়েছে। তাতে কোনও নেতিবাচক প্রভাব পড়েনি। মেসিও বার্সেলোনা ছেড়ে চলে গেলে কিছুই বদলাবে না বললেন তেবাস। আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডকে ছাড়া লা লিগা এগিয়ে যেতে প্রস্তুত। রোনালদো ও নেইমার চলে যাওয়ার পর কোনও বাধার মুখে পড়েনি এই প্রতিযোগিতা। তবে মেসি চলে গেলে এর প্রভাব পড়বে এমনটা বিশ্বাস করেন না তেবাস।

[৪] লা লিগার প্রধান বলেছেন, আমরা চাই মেসি লা লিগায় থাকুক। কিন্তু রোনালদো ও নেইমারও তো চলে গেছে। আমরা তো কোনও পরিবর্তন দেখতে পাইনি। আমরা প্রস্তুত। এই মৌসুম শুরুর আগে মেসি বার্সেলোনাকে জানিয়ে দেন তিনি আর থাকছেন না। কিন্তু রিলিজ ক্লজের জটিলতায় আরও এক বছর থাকতে হচ্ছে ৩৩ বছর বয়সী ফরোয়ার্ডকে।

[৫] মেসি চাইলে এই মৌসুম শেষে ফ্রি ট্রান্সফারে অন্য কোনও দলের সঙ্গে চুক্তি করতে পারেন। কিন্তু ম্যানসিটি তাকে দাম দিয়ে জানুয়ারিতে দলে ভেড়াতে চাচ্ছে। ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ীর সম্ভাব্য গন্তব্য হিসেবে প্রিমিয়ার লিগের এই ক্লাবকে মনে করা হচ্ছে।

[৬] তেবাসেরও একই কথা, সবকিছু দেখে মনে হচ্ছে প্রিমিয়ার লিগের একমাত্র ক্লাব হিসেবে যারা মেসিকে নেওয়ার কথা যারা বলছে তারা ম্যানচেস্টার সিটি, যারা নিয়মের বাইরে কাজ করে। আমি শুধু একাই এই কথা বলছি না। তাদের নিয়ে আমি ভাবছি না। তারা অনেকবার যা করেছে, আমি তার সমালোচনা করেছি। আরেকবার সমালোচনা করলে কিছুই যায় আসে না। কোভিড কিংবা মহামারিতে আর্থিক ক্ষতি হয়নি সিটির, কারণ তারা ভিন্ন উপায়ে অর্থ উপার্জন করে। – ডেইলিস্টার/ মার্কা

সর্বাধিক পঠিত