প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কামরুল হাসান মামুন: আমাদের সর্বনাশ অনেক আগেই হয়ে গেছে

কামরুল হাসান মামুন : আসলে আমাদের সর্বনাশ অনেক আগেই হয়ে গেছে। আমরা টের পাইনি কারণ এতোদিন বরফ থেকে পানি হতে যে সুপ্ততাপ লাগে আমরা সেই অবস্থার মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিলাম। বরফ থেকে পানি হতে সুপ্ত তাপ লাগার সময় তাপমাত্রার যেমন কোনো পরিবর্তন হয় না তেমনি আমাদের সমাজের চোখে পরার মতো তেমন পরিবর্তন হয়নি।

আজকে যা দেখছি সেটা phase transition এর ফাইনাল আউটকাম। এখন সর্বনাশের বহিঃপ্রকাশ ঘটছে বলে আমরা অনেকেই চমকে উঠছি। কিন্তু দেশে যদি সত্যিকারের দূরদৃষ্টিসম্পন্ন নেতা থাকতো সেটা অনেক আগেই টের পেত। ওই রকম দূরদৃষ্টিসম্পন্ন নেতা নেই বলে আমরা অনেকদিন যাবৎ আমাদের সমস্যাগুলো ঝাড়ু দিয়ে কার্পেটের নিচে রেখে দিয়ে তৃপ্তির ঢেকুর তুলেছি এই ভেবে যে সব কিছু ঠিক আছে। কল্পনা করা যায় একটি যুবক বিশাল একটা দা উঁচিয়ে প্রকাশ্যে লাইভে এসে একজন তারকাকে কেটে টুকরো টুকরো করার হুমকি দেয়।

যুবকটির ভাষা দেখেছেন? সে নিজেকে ধার্মিক মনে করে অথচ সাকিবের মাকে নিয়েও যেই অকথ্য ভাষায় গালাগালি করল তারপরও আমাদের সত্যিকারের ধার্মিক সমাজের মানুষ থেকে কোনো প্রতিবাদ দেখছি না। আরো বিস্ময়ের হলো এই হুমকি কাজেও লেগেছে। সাকিব ক্ষমাও চেয়েছেন। সেটাও আবার নানা মিথ্যা বলে। এইটা আরো বেশি ক্ষতিকর। এখন ওই যুবকের মতো আরো যারা আছে তারা এই ঘটনায় উৎসাহিত হয়ে এইরকম আরো অনেক ঘটনার জন্ম দেবে। এই যুবককেই যদি আজ ভারত কিংবা পশ্চিমা কোনো দেশে নিয়ে রাখা হয় সেকি ওখানে থেকে এই একই হুমকি দিতে পারতো?

অর্থাৎ সে এইটা এখান থেকে করতে পেরেছে কারণ তার মগজে এইটা গেঁথে গেছে এইটা এখানে করলে কিছু হবে না বরং অনেকেই বাহবা দিবে, প্রচুর লাইক পাবে। এইজন্যই আমি সবসময় বলি একটি দেশে যখন একই মতের ও একই ধর্মের মানুষ বেশি হয়ে যায় সেইটা আর ভালো ও সুস্থ্য না থাকারই সম্ভবনা বেশি। আর যদি সত্যিকার শিক্ষার অভাব থাকে তাহলেতো কথাই নেই। বর্তমান আওয়ামীলীগ কেবল ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য যা করল তার জের আমাদের টানতে হবে হাজার বছর ধরে।

এইটা অপূরণীয় ক্ষতি। আমরা সমাজে একটা ন্যারেটিভ প্রতিষ্ঠিত করে ফেলেছি আর সেটা হলো আওয়ামীলীগের বিকল্প নেই। এইটা একটা ডেঞ্জারাস ন্যারেটিভ! এই ন্যারেটিভের ক্ষতি এতোদিন পর স্পষ্ট হচ্ছে। এই ন্যারেটিভের কারণে আওয়ামীকে প্রগতিশীলদের আর তোয়াজ করতে হয় না। ধরেই নিয়েছে এদের সাপোর্ট বাই ডিফল্ট আওয়ামী লীগ পাবেই। আওয়ামী লীগ তাই মনোযোগ দিয়েছে ধর্মান্ধদের তোয়াজ করতে। কারও বিকল্প নেই এই ভাবনা যে কতো মস্ত বড় ক্ষতিকর তা ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব না। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত