প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] চূড়ান্ত ট্রায়ালে ফাইজারের ভ্যাকসিন নিরাপদ ও ৯৫ শতাংশ কার্যকর প্রমাণিত

আসিফুজ্জামান পৃথিল: [২] ট্রায়ালের অন্তবর্তী ফলে কোম্পানিটি বলেছিলো তাদের করোনা ভ্যাকসিন ৯০ শতাংশ কার্যকর। এমনকি বৃদ্ধদের জন্যও এটি কোনও গুরুতর নিরাপত্তা ঝুঁকি তৈরি করে না। এই ভ্যাকসিন গ্রাহক স্বেচ্ছাসেবকদের মধ্যে ১৭০ জনের পরবর্তীতে করোনা হয়েছে। তাদের ১৬২ জনকে পেলসিবো বা প্লেইন স্যালাইন শট এবং ৮ জনকে সত্যকারের ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছিলো। সিএনএন

[৩] ফাইজারের জার্মান অংশীদার বায়োএনটেক এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘এই কার্যকারীতা বয়স, জাতি এবং জাতিসত্তার উপর ভিত্তি করে নির্ধারণ করা হয়েছে। ৬৫ বছরের বেশি বয়সীদের উপর এই ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা ৯৪ শতাংশ। কোভিড-১৯ ট্রায়ালে ১০টি গুরুতর করোনা কেস পেয়েছি আমরা। এর ৯ জনকেই পেলসিবো দেয়া হয়েছিলো। ’ ডয়েচে ভেলে

[৪] ভ্যাকসিনের নিরাপত্তা খতিয়ে দেখায় জন্য গঠিত সতন্ত্র গ্রুপ ডেট বলছে, ব্যাকসিনটির ট্রায়ালে অনিরাপদ বলা যায় এমন কিছু ঘটেনি। তাই তারা এটিকে মানবদেহের জন্য নিরাপদ ঘোষণা করেছেন। তবে এই ভ্যাকসিনটিকে শূণ্যের চেয়েও ৭০ ডিগ্রি নিম্ন তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করতে হয়। পৃথিবীর অধিকাংশ দেশে এই ধরণের সংরক্ষণাগারই নেই।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত