প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] নেপালের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচ ড্র, তবু সিরিজ বাংলাদেশের

রাহুল রাজ: [২] খেলার শেষের দিকে বাংলাদেশের প্রতিটি দর্শক অপেক্ষা করছিলেন কখন ম্যাচ শেষ হবে। নেপালের খেলোয়াড়েরা বল পায়ে পেলেই টাইগার ভক্তদের দম বন্ধ হবার উপক্রম ছিল। রেফারির শেষ বাঁশির সাথে সাথে কোটি ফুটবল প্রেমীর বুকে আটকে থাকা নিশ্বাস জয়ের উল্লাসে বেরিয়ে আসে। অনেক দিন পরে বাংলাদেশের ফুটবল ভক্তরা প্রিয় দলের জয় দেখতে পেল।

[৩] দুই ম্যাচের সিরিজে দুটি জয়ই প্রত্যাশা করেছিল দর্শকরা। বাংলাদেশ দলের কোচ, খেলোয়াড়রাও বলেছিলেন জয়ের ধারা অব্যাহত রাখতে চান তারা। কিন্তু প্রথম ম্যাচের বাংলাদেশকে খুঁজে পাওয়া যায়নি দ্বিতীয় ম্যাচে। তাই তো জয় নয়, দ্বিতীয় ম্যাচে ড্র করে সিরিজ জিতে নিলো লাল-সবুজ জার্সিধারীরা।

[৪] মঙ্গলবার ১৭ নভেম্বর বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ ও নেপালের মধ্যেকার মুজিববর্ষ ফিফা ফ্রেন্ডলি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি ড্র হয়েছে গোলশূণূভাবে। গত শুক্রবার প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ ২-০ গোলে হারিয়েছিল অথিতি দলটিকে।

[৫] দ্বিতীয় ম্যাচ ড্র করায় বাংলাদেশ সিরিজ জিতলো ১-০ ব্যবধানে। নেপালের পাওয়া দুই ম্যাচের সিরিজে একটি ড্র।

[৬] প্রথম ম্যাচের একাদশে দুটি পরিবর্তন এনেছিলেন ভারপ্রাপ্ত কোচ স্টুয়ার্ট ওয়াটকিস। গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানাকে এ ম্যাচে পুরো সময়ই খেলিয়েছেন কোচ। ডিফেন্ডার রিয়াদুল হাসানের পরিবের্ত একাদশে রাখা হয়েছিল অভিজ্ঞ ইয়াসিন খানকে। তবে ম্যাচ শেষে অনেকটা হতাশ হয়েই গ্যালারি ছেড়েছে সমর্থকরা। কারণ, তাদের প্রত্যাশা ছিল দুই ম্যাচই জিতবে জামাল ভূঁইয়ারা।

[৭] ম্যাচ শেষে আতশবাজি ফুটিয়ে সিরিজ জয় উদযাপন করেছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। প্রথম ম্যাচের সমান না হলেও দ্বিতীয় ম্যাচে হাজার দশেক দর্শক বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে উপস্থিত থেকে জীবন-সাদ উদ্দিনের উৎসাহ দিয়েছে।

[৮] প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস মহামারীর মাঝেই স্টেডিয়ামে আট হাজার দর্শক উপস্থিতির অনুমতি দিয়েছিল বাফুফে। দর্শকদের প্রতি জানানো হয়েছিল সংক্রমণ এড়াতে নিরাপদ দুরত্ব মেনে বসার আহ্বান। প্রথম ম্যাচেই সেই নিয়ম মানার আগ্রহ দেখা যায়নি তেমন। আর দ্বিতীয় ম্যাচে তো ছিল না সেসবের ছিটোফোটাও। উল্টো গ্যালারি ছিল দর্শকে ঠাসা। শুরুতে একটু ফাঁকা থাকলেও ম্যাচ শুরুর সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে দর্শক সমাগম।

[৯] বাংলাদেশ একাদশ :
আশরাফুল ইসলাম রানা (গোলরক্ষক), বিশ্বনাথ ঘোষ, রহমত মিয়া, তপু বর্মণ, জামাল ভুঁইয়া (অধিনায়ক), নাবিব নেওয়াজ জীবন, ইয়াসিন খান, সুমন রেজা (সুফিল), মোহাম্মদ ইব্রাহিম (সোহেল রানা), মানিক মোল্লা ও সাদ উদ্দিন।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত