প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ক্রিপ্টোকারেন্সিকে পেপাল স্বীকৃতি দেয়ার পর বিটকয়েনের দর সর্বোচ্চ

রাশিদ রিয়াজ : পেপাল খদ্দেররা এখন থেকে ক্রিপ্টোকারেন্সিতে লেনদেন করতে পারবেন। বিটকয়েন রয়েছে এর মধ্যে। ভার্চুয়াল মানি শপের সঙ্গে ক্রিপ্টোকারেন্সির যোগসূত্র গড়ে দিল পেপাল। এরফলে অনেকে ক্রিপ্টোকারেন্সি জমা করতেও পারবেন। এখবরের পরেই গত বছর জুলাইয়ের পর বিটকয়েনের মূল্য সর্বোচ্চ ১৩ হাজার ডলার উঠেছে। নিউইয়র্কে লেনদেনে বিটকয়েনের দাম ৯৫০ ডলার (৮ শতাংশ) বৃদ্ধি পায়। আরেক ক্রিপ্টোকারেন্সির লিটকয়েনের দর ১৩ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। ক্রিপ্টোকারেন্সি লেনদেন করছে ২৬ মিলিয়ন ব্যবসায়ী। পেপালের শেয়ার মূল্য সাড়ে ৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে তা অর্থমূল্যে দঁড়িয়েছে ২১৩.০৭ ডলার। গত মে মাসের পর এটাই সর্বোচ্চ বৃদ্ধি পেপালের। স্পুটনিক ইন্টারন্যাশনাল

গ্যালাক্সি ইনভেস্টমেন্ট পার্টনারর্সের মালিক মাইক নোভোগ্রাৎজ বলেন ক্রিপ্টোকারেন্সিকে পেপালের স্বীকৃতি অনেক বড় খবর। ব্যাংকে ডিজিটাল কারেন্সি লেনদেন হওয়ার সুযোগ পেল। ক্রিপ্টো ভক্ত বা লেনদেনকারীরা এতে খুশি। স্কয়ার ইনকরপোরেশন ও মাইক্রোস্ট্রাটেজি ইনকরপোরেশন বলেছে তারা এখন থেকে বিটকয়েনে বিনিয়োগ করবে। গত আগস্টে ফিডেলিটি ইনভেস্টমেন্ট বিটকয়েনে লেননেদের কথা ঘোষণা করে। পেপাল বলছে তারা বিশ^ব্যাপী ক্রিপ্টোকারেন্সির লেনদেন সম্প্রসারণে কাজ করবে। ক্রিপ্টোর পরিবর্তে লেনদেনে মার্কিন ডলার নিতে পারবেন লেনদেনকারীরা। ফিডেলিটির সভাপতি ও প্রধান নির্বাহী ড্যান শুলম্যান বলেন মুদ্রার ডিজিটাল রুপগুলোতে স্থানান্তর অনিবার্য হয়ে উঠেছিল এবং এতে বিনিয়োগকারী ও লেনদেনকারীরা দ্রুত মুদ্রা লেনদেন করতে পারবেন। লেনদেন ব্যবস্থার দক্ষতা ও গতি ছাড়াও গ্রহণযোগ্যতা বাড়বে। নাগরিকদের তহবিলও দ্রুত বিতরণ করা সম্ভব হবে।

করোনাভাইরাস মহামারী ছড়িয়ে পড়ার পর বিটকয়েনের মূল্য ৩১ শতাংশ পড়ে যায়। কিন্তু গত অক্টোবরে বিটকয়েনের মূল্য ১৯ শতাংশ বৃদ্ধি পায়। তবে এখনো বিটকয়েনে লেনদেন সীমিত পর্যায়ে রয়েছে। কারণ এ সম্পর্কে মানুষের ধারণা বা অনুমান খুবই কম। এবছর বিটকয়েনের মূল্য ৭৫ শতাংশ বৃদ্ধি পেলেও ২০১৭ সালে এর মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছিল ২০ হাজার ডলার যা থেকে তা এখনো ৭ হাজার ডলার কম রয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত