প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কাশ্মীরে দ্রুত-গতির ইন্টারনেট সেবা নিষিদ্ধের মেয়াদ পুনরায় বাড়ালো ভারত

লিহান লিমা: [২] আগামী ১২ নভেম্বর পর্যন্ত ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু ও কাশ্মীরের ২০টির মধ্যে ১৮টি এলাকায় দ্রুত গতির ইন্টারনেট সেবায় নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়িয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। আনাদুলু এজেন্সি/আল জাজিরা

[৩]ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের বিবৃতিতে বলা হয়, ‘দ্রুত গতির সেবা চালু থাকলে এর অপব্যবহার করে অপরাধমূলক কার্যক্রম এবং তরুণদের জঙ্গি সংগঠনে যোগ দিতে প্রলুদ্ধ করার মতো দেশবিরোধী কার্যক্রমের আশঙ্কা রয়েছে। ভারতের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতার স্বার্থে ইন্টারনেটে নিষেধাজ্ঞার পদক্ষেপ অত্যন্ত প্রয়োজনীয়।’

[৪] গত বছরের ৫ আগস্ট ভারত আধা-স্বায়ত্বশাসিত কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা রদ করার পরপরই রাজ্যটিতে দ্রুত-গতির ইন্টারনেট পরিসেবা বন্ধ রয়েছে।

[৫] এদিকে গত সোমবার জম্মু-কাশ্মীরের অন্যতম জনপ্রিয় দৈনিক ‘কাশ্মীর টাইমস’ এর অফিস সিল করে দেয়া হয়েছে। দৈনিকের প্রধান সম্পাদক, অনুরাধা ভাসিন বলেন, ‘স্বাধীনভাবে মত প্রকাশ করার জন্যই স্থানীয় প্রশাসন অফিস বন্ধ করে দিয়েছে।’ কাশ্মীরের অসংখ্য সাংবাদিক যৌথ বিবৃতি বলেছেন, ‘২০১৯ সালে ৫ আগস্টের পর কাশ্মীরের সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছিল কাশ্মীর টাইমস। তাই তাদের কণ্ঠরোধ করা হচ্ছে।’ কয়েকজন সাংবাদিক বিনা পারিশ্রমিকে দৈনিকটির জন্য কাজ করার ঘোষণা দিয়েছেন।

[৬] ১৯৪৭ সাল থেকেই কাশ্মীর নিয়ে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে বিভেদ চলছে। দুই দেশই কাশ্মীরকে নিজেদের বলে দাবি করছে। ১৯৪৮, ১৯৬৫ ও ১৯৭১ সালে হিমালয়ের এই অঞ্চলটি নিয়ে দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধ হয়েছে। এর ক্ষুদ্র একটি অংশ চীনের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ কাশ্মীরের কিছু গোষ্ঠি ভারতের শাসন মুক্ত হয়ে স্বাধীনতা চাইছেন, আবার কেউ পাকিস্তানের সঙ্গে যুক্ত থাকতে চান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত