প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] অ্যাস্ট্রজেনেকার সমস্ত টিকা কিনে নেয়ার সিদ্ধান্ত ট্রাম্পের

রাশিদুল ইসলাম : [২] যুক্তরাষ্ট্রে আগামী বছর ৪০ কোটি ভ্যাকসিনের ডোজ পাকাপোক্ত করতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। ব্রিটিশ সুইডিশ ফার্ম অ্যাস্ট্রজেনেকা যে পরিমাণ টিকার ডোজ তৈরি করবে তার পুরোটাই কিনে নেবেন ট্রাম্প। করোনাভাইরাস ভ্যাকসিনের তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল করছে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রজেনেকা। এ কোম্পানিটিকে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ১০ কোটি টিকার প্রস্তাব দিয়ে রেখেছেন। ডেইলি মেইল/সিএনএন/মারকেট ওয়াচ

[৩] অ্যাস্ট্রজেনেকার মুখপাত্র জানিয়েছেন, কোভিড ভ্যাকসিনের ডোজ কেনার কথাবার্তা চলছে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে। যুক্তরাষ্ট্রের রেগুলেটর কমিটি যদি আগে টিকার ডোজ বুক করে দেয় তাহলে দেশটিকে তারা তা দিতে বাধ্য। তার মানে ব্রিটেনের আগেই অ্যাস্ট্রজেনেকার টিকার ডোজ পাবে যুক্তরাষ্ট্র। এজন্যে ট্রাম্প প্রশাসন ১.২ বিলিয়ন ডলার দিয়েছে।

[৪] প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগেই করোনার টিকা আনার কথা বলেছিলেন ট্রাম্প। ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব অ্যালার্ডি অ্যান্ড ইনফেকশিয়াস ডিজিজের প্রধান অ্যান্থনি ফাউচি বলেছিলেন, এ বছর শেষের আগেই টিকা চলে আসার সম্ভাবনা রয়েছে।

[৫] টিকার বন্টন অর্থের জোরে নয় বরং সংহতি মেনে করা উচিত, এমন দাবি উঠেছে বিশ্বজুড়েই। মাইক্রোসফট কর্মকর্তা বিল গেটস জানিয়েছিলেন, বড় বড় রাষ্ট্রনেতারা ক্ষমতা আর অর্থের জোরে আগে থেকেই টিকা কিনে রাখার পরিকল্পনা করেছেন, যার অর্থ গরিব ও পিছিয়ে পড়া দেশগুলিতে টিকার কোনও ডোজই পৌঁছবে না। সারা বিশ্বে টিকার সমবন্টন না হলে করোনা অতিমহামারীকে থামানো সম্ভব নয়।

[৬] ভ্যাকসিনের সমবন্টনের জন্য ‘কোভিড ভ্যাকসিন গ্লোবাল অ্যাকসেস’ কর্মসূচী তৈরি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। কিন্তু হু-র সঙ্গে করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে কাজ না করার কথাই সাফ জানিয়ে দিয়েছেন ট্রাম্প।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত