প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ইমরান খানের পদত্যাগের দাবী পাকিস্তানে হাজারো মানুষের বিক্ষোভ

লিহান লিমা: [২] পাকিস্তানের পাঞ্জাবের গুজরানওয়ালাতে শত শত নারী-পুরুষ জড়ো হয়ে দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করেছে। দেশটিতে বিদ্যুত ও গ্যাস সহ নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি ও অন্যান্য ইস্যুকে কেন্দ্র করে সরকারের বিরুদ্ধে পুঞ্জিভূত ক্ষোভকে কেন্দ্র করে বিরোধী দলগুলোর জোট বিক্ষোভের ডাক দিয়েছে। আল জাজিরা

[৩] পাকিস্তান মুসলিম লীগ (পিএমএল-এন), পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি) ও জামায়াতে উলামা ইসলামসহ (জেইউআই-এফ) ১১টি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলোর জোট পাকিস্তান ডেমোক্রেটিক মুভমেন্ট (পিডিএম) শুক্রবার নিজেদের প্রথম গণ-আন্দোলনের ডাক দেয়। গত ২০ সেপ্টেম্বর জোট গঠন করে পিডিএম পাকিস্তানের রাজনীতিকে সেনার প্রভাব বন্ধ এবং ইমরান খানকে ক্ষমতা থেকে উৎখাতের ডাক দেয়।

[৪] এদিনের বিক্ষোভে লন্ডন থেকে লাইভ ভিডিওতে সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ পাকিস্তনের সেনা প্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়ার বিরুদ্ধে তার সরকারকে উৎখাত, বিচার বিভাগের ওপর চাপ প্রয়োগ এবং ২০১৮ সালের নির্বাচনে ইমরান খানকে ক্ষমতায় বসানোর অভিযোগ তোলেন। নওয়াজের এই মন্তব্য প্রচারে পাকিস্তানের গণমাধ্যমগুলোকে নিষেধ করা হয়।

[৫] নওয়াজের কন্য মারিয়াম নওয়াজ গুজরানওয়ালার বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন। তিনি বলেন, ‘আপনাদের ভোটেই সরকারের আসা উচিত এবং আপনাদের ভোটেই যাওয়া উচিত। কারো আপনাদের ভোটের কর্তৃত্ব নেয়ার অধিকার নেই। যদি তারা সেটি করে তবে আপনাদের ক্ষমতাই তাদের বিতাড়িত করবে।’ পিপিপি প্রধান বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারী সরকারের ওপর দুর্নীতির অভিযোগ এনে বলেন, ‘দারিদ্রতা ও মুদ্রাস্ফীতি এখন দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ।’

[৬] পাকিস্তান সরকার এই বিক্ষোভকে ‘শো’ বলে মন্তব্য করেছে। দেশটির তথ্যমন্ত্রী বলেছেন, ‘এটি পাকিস্তানের গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠান এবং অর্থনীতিকে ধ্বংস করার পাঁয়তারা।’

[৭] ২০১৮ সালের জুলাইতে নির্বাচনের মাধ্যম ক্ষমতায় আসে ইমরান খানের তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)। বিরোধী দল ভোট কারচুপি ও ফলাফল জালিয়াতির অভিযোগ আনে। এর আগে ২০১৭ সালে সম্পদ নিয়ে মিথ্যে বলার অভিযোগে পাকিস্তান সুপ্রিমকোর্ট সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফকে দোষী সাব্যস্ত করে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেয় ও নতুন নির্বাচনের নির্দেশ দেয়। চিকিৎসার জন্য জামিন নিয়ে লন্ডনে যাওয়া নওয়াজের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি রয়েছে।

সর্বাধিক পঠিত