প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]সিরিয়ায় কুর্দি বাহিনীর বন্দিশিবির থেকে মুক্তি পেলো ৬১৩ আইএস যোদ্ধা, এখনও বন্দি ১০ হাজার

সিরাজুল ইসলাম: [২] দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় কামিশলী শহরের কাছে আলেয়া ও আল-হল বন্দি শিবির থেকে বৃহস্পতিবার তাদের মুক্তি দেয়া হয়। আদিবাসী আরবিয়দের আহ্বানে সাধারণ ক্ষমার আওতায় তাদের মুক্তি দেয়া হলো। আলজাজিরা

[৩] সিরিয়ান ডেমোক্রেটিক কাউন্সিলের প্রধান আমিনা ওমর বলেন, হাতে রক্তের দাগ না থাকায় তাদের মুক্তি দেয়া হয়েছে। আইএসে যোগ দেয়ায় তারা অনুতপ্ত। তাদের পুনর্বাসন করা হবে।

[৪] তিনি বলেন, আরও ২৫৩ আইএস যোদ্ধার সাজা অর্ধেক কমিয়ে দেয়া হয়েছে। মুক্তিপ্রাপ্তরাও অর্ধেক সাজা খেটেছেন।

[৫] আলেয়া বন্দিশিবির থেকে বেশ কয়েকজন বন্দিকে ছাড়া পেতে দেখেছেন এএ্ফপির সংবাদদাতা। সেখানে তারা পরিবারের সঙ্গে পুনর্মিলন করেছেন এবং পরে তারা চলে গেছেন। এএ্ফপি

[৬] আহমাদ হোসেন নামে একজন বলেন, নারী পাচারের দায়ে তার ভাই আল-হল শিবিরে ৮ মাস জেল খেটে মুক্তি পেয়েছেন ।

[৭] যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন পুষ্ট কুর্দি মিলিশিয়া বাহিনী সিরিয়ায় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য লড়াই করছে। এ বাহিনীর অর্ধেক সদস্য আদিবাসী আরবিয়। কুর্দি কর্তৃপক্ষ ওই অঞ্চলে ২৪টির বেশি বন্দিশিবির পরিচালনা করছে। এগুলোতে আটক আছে ১০ হাজারের বেশি আইএস যোদ্ধা। তাদের ২ হাজার বিদেশি। তাদের ফিরিয়ে নিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে তাদের দেশ। তাদের ৮০০ জন ইউরোপের বিভিন্ন দেশের নাগরিক। আরব নিউজ

[৮] আল-হল শিবিরে বন্দি আছে ৬৫ হাজার। তাদের মধ্যে সিরিয় ২৪ হাজার ৩০০। কুর্দিদের পক্ষে শিবির চালানোর অর্থ সংকুলান করা অসাধ্য হয়ে পড়ছে। সৌদি গেজেট

[৯] ২০১৪ সালে ব্যাপক ক্ষমতা প্রর্দশন করে আইএস। পরে তারা ইরাক ও সিরিয়ার এক তৃতীয়াংশ দখল করে নেয়। প্রথমে এ বাহিনীর নাম ছিলো ইসলামিক স্টেট অব ইরাক অ্যান্ড সিরিয়া (আইএসআইস)। পরে তারা বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়ে এবং শাসন প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করে। তখন নাম হয় ইসলামিক স্টেট (আইএস)।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত