প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মোস্তফা কামাল: ‘শেখ মুজিবের যে জনপ্রিয়তা, তাতে জামানত হারানোর ভয় আছে’

মোস্তফা কামাল: মওলানা ভাসানী ফোনের রিসিভার তুলে আতাউর রহমান খানের বাসার নম্বরে ফোন করলেন। টেলিফোনের ওপাশ থেকে আতাউর রহমান খান নিচু গলায় বললেন, হ্যালো! মওলানা ভাসানী বললেন, এটা খান সাহেবের নম্বর না? কোন খান সাব? আরে! আমাদের খান তো একজনই; আতাউর রহমান খান। ওহ হুজুর, আপনি! কী মনে করে অধমকে ফোন দিলেন? আমি তো ভাবতেই পারিনি আপনি ফোন দেবেন। সত্যিই আমি অবাক হয়েছি। আরে কী বলে। পূর্ব বাংলার সেই ডাকসাইটে প্রধানমন্ত্রী নাকি অধম। ওসব বলে আর লজ্জা দেবেন না হুজুর। এখন আর আমাগোরে কেউ পোছে না। কী যে বলেন খান সাব। পুরানা চাল ভাতে বাড়ে। কেউ না পোছলেও মান-মর্যাদা তো আর কমে যায়নি।
আপনি বললেন, পুরানা চাল ভাতে বাড়ে। আর মানুষ কি বলে জানেন? কী বলে? বলে, ভাতে বাড়লে কী হবে? সেই ভাত থেকে গন্ধ বের হয়। হা হা হা! আপনি তো বড্ড রসিক মানুষ! হা হা হা! আপনি কী জন্য ফোন দিয়েছেন হুজুর? আপনার কথা শুনি। সামনে নির্বাচন। ভোট-ঠোট করবেন নাকি? জি। ইচ্ছা তো আছে। ধন্যবাদ। মুজিবররে একদম ফাঁকা মাঠ ছাইড়া দেওয়া ঠিক হইবো না। আমরা ছোটখাটো দল। শেখ মুজিবের যে জনপ্রিয়তা, তাতে জামানত হারানোর ভয় আছে। তা আপনি ঠিকই বলেছেন খান সাব। আপনার সঙ্গে একটুও দ্বিমত করবো না। তবে জোট বাঁধলে কিছুটা রক্ষাও হইতে পারে। তা হয়তো পারে। আবার নাও পারে। না না! আগেই হতাশা ছড়াইবেন না। শোনেন, চেষ্টা করতে তো দোষ নাই। আমরা চেষ্টা করে দেখি। যা করে আল্লায়। (উপন্যাস : ১৯৭৫)। অন্যপ্রকাশ থেকে প্রকাশিত হবে ১৬ই ডিসেম্বর। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত