প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিতর্কিত নির্বাচন: গণবিক্ষোভের মুখে পদত্যাগে বাধ্য হলেন কিরগিজস্তানের প্রেসিডেন্ট

লিহান লিমা: [২] গত ৪ অক্টোবরের বিতর্কিত নির্বাচনের পর থেকেই দেশটির জনগণ প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করছে। পদত্যাগের পর এক বিবৃতিতে কিরগিজ প্রেসিডেন্ট সরোনোবে জেনবেকভ বলেন, ‘আমি কিরগিজস্তানের ইতিহাসে সেই প্রেসিডেন্ট হয়ে থাকতে চাই না যে নিজের জনগণের ওপর গুলি চালিয়েছে ও রক্ত ঝরিয়েছে।’ বিবিসি

[৩]জেনবেকভ মধ্য এশিয়ার এই দেশটির তৃতীয় প্রেসিডেন্ট। ১৯৯১ সালে সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে স্বাধীনতা পায় কিরগিজস্তান। ২০০৫ সালে গণআন্দোলনে কিরগিজস্তানের প্রেসিডেন্ট আশকার আকাইভ ও ২০১০ সালে প্রেসিডেন্ট কুরমানবেক বাকিজেভকে উৎখাত করা হয়।

[৪]পদত্যাগের পর জেনবেকভ নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত প্রধানমন্ত্রী সাদের জাপারোভ ও অন্যান্য বিরোধী রাজনীবিদদের শহর থেকে নিজের সমর্থকদের সরে যেতে বলার আহ্বাস জানান, যেনো বিশকেকে শান্তি ফিরে আসে।

[৫]আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকরা নির্বাচনকে ‘গ্রহণযোগ্য’ ঘোষণা করলেও বিক্ষোভকারীরা রাস্তায় নেমে নতুন নির্বাচন ও রাশিয়া-পন্থী জেনবেকভের পদত্যাগের দাবী জানায়। তারা বলছেন, ফলাফল জালিয়াতি করা হয়েছে। এই পর্যন্ত বিক্ষোভে ১২’শরও বেশি আহত হয়েছেন এবং একজন নিহত হয়েছেন।

[৬]বুধবার পার্লামেন্টের ভোটের পর জেনবেকভ নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে জাপারেভকে নিয়োগ দেন। জাতীয়তাবাদী রাজনীতিবিদ জাপারোপ এতদিন কারাবন্দী ছিলেন। গত সপ্তাহে তার সমর্থকরা তাকে মুক্ত করে। তিনিই প্রেসিডেন্টর বিরুদ্ধে আন্দোলনের ডাক দেন এবং বৃহস্পতিবার সেনাবাহিনীর সমর্থন নিয়ে প্রেসিডেন্টের বাসভবনের সামনে বিক্ষোভকারীদের মার্চ করার আহ্বান জানান।

[৭]কিরগিজস্তানের পার্লামেন্টের স্পিকার প্রেসিডেন্টের পদত্যাগের পর অন্তবর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন। কিন্তু জাপারোভের সমর্থকরা তারও পদত্যাগ চাইছেন। তারা প্রধানমন্ত্রীকে দেশের নতুন নেতা হিসেবে চাইছেন।

সর্বাধিক পঠিত