প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] জানেন কি গালে টোল পড়ার রহস্য ?

সাজিয়া আক্তার : Dimple বা টোল জিনিসটা আপনার হাসির সৌন্দর্যকে বাড়িয়ে দেয়। কিন্তু জেনে অবাক হবেন যে এটি কোনো সৌন্দর্যের প্রতীক নয়, বরং দেহের অভ্যন্তরীণ ত্রুটির ফল হলো টোল।

⭕ কিভাবে টোলের সৃষ্টি হয়?

এটি মূলত একটি জিনগত ত্রুটি। জন্মের সময় শারীরিক গঠনের একদম শুরুর দিকে সাবকিউটেনাস কানেক্টিভ টিস্যুর পরিবর্তন ঘটে।সেই অর্থে এটি রিসেসিভ জিন নয়।এই একটি ত্রুটিপূর্ণ জিনই গালে ‘টোল’ এর জন্য দায়ী।

▶ সাবকিউটেনাস কানেক্টিভ (যোজক) টিস্যু

-যা হাইপোডার্মিস হিসেবে পরিচিত।এটি ত্বকের সবচেয়ে ভিতরের বা নিচের স্তর। হাইপো (নিচে) +ডার্ম(ত্বক)→হাইপোডার্মিস

-এই স্তর চর্বি ও যোজক টিস্যু দ্বারা গঠিত।

– বৃহৎ রক্তনালী ও স্নায়ুগুলোকে ধারণ করে।

-অন্তরক হিসেবে কাজ করে শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে।

▶রিসেসিভ জিন (বিরল জিন) হল যে জিন প্রভাবশালী জিনের উপস্থিতিতে প্রকাশিত হয় না।

মূলত হাইপোডার্মিসের সাবকিউটেনাস কানেক্টিভ টিস্যুতে জিনগত ত্রুটির ফলে টোলের সৃষ্টি হয়।যখন একজন ব্যক্তি হাসি দেয় তখন একটি নিম্নচাপের সৃষ্টি হয়।তখন ত্বকের মাংসপেশিতে টান পড়ে।এই মাংসপেশি হলো জাইগোম্যাটিক মেজর।

▶জাইগোম্যাটিক অস্থি হল চোখের নিচে হাত বুলালে প্রতি গালে একটা করে যে হাড় পাওয়া যায়

-এটি আমাদের হাসির জন্য প্রধানত দায়ী।

-এটি আমাদের মুখ কোনাকুনি বা তির্যকভাবে বাঁকা করে হাসতে সাহায্য করে।এটি মানুষের গালের হাড় থেকে মুখের শেষ পর্যন্ত বিস্তৃত। এই পেশীর আঁকার স্বাভাবিকের চেয়ে ছোট হলে বা এটি দুই ভাগে বিভাজিত হবার ফলে থুতনিতে বা গালে টোল দেখা যায়।

⭕ কেন টোল পড়ে?

গবেষণায় দেখা গিয়েছে জেনেটিক কারণে হয়। তবে, অনেকে এ মতের বিরোধীতা করেন।

কোন মা-বাবার কারো একজনের টোল থাকলে সন্তানের থাকার সম্ভাবনা প্রায় ২৫-৫০%। এক্ষেত্রে দুজনের একজনের টোল সৃষ্টিকারী জিন সন্তানের মধ্যে থাকলেই চলবে। মা-বাবা দুজনের-ই থাকলে সন্তানের থাকার সম্ভাবনা ৫০-১০০%। মা-বাবা কারোর-ই না থাকলে সন্তানের থাকার সম্ভাবনা নেই, যদিনা সে কোন জেনেটিক মিউটেশন শিকার হয়।

তাছাড়াও মুখে অতিরিক্ত চর্বি জমে যাওয়ার কারণেও হতে পারে। অনেক শিশুদের ছোটবেলায় চর্বির কারণে টোল দেখা যায়। বয়স বৃদ্ধির সাথে সেই টোল আবার অদৃশ্য হয়ে যায়।

 

 

সর্বাধিক পঠিত