প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] আশুলিয়ায় শিশু হত্যার ঘটনায় ৭ জনকে ৭ দিনের রিমাণ্ড আবেদন

এম এ হালিম: [২] আশুলিয়ার কলতাসূতিতে ৭ বছরের শিশু আসিফ খান হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ৭ জনকে ৭ দিনের রিমাণ্ড আবেদন করে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

[৩] বুধবার (১৪ অক্টোবর) দুপুরে আসামিদের আশুলিয়া থানা থেকে আদালতে পাঠানো হয়।

[৪] এর আগে মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে আশুলিয়ার বিভিন্ন স্থান থেকে ৭ জনকে আটক করে পুলিশ। পরে রাতেই নিহত শিশুর বাবা জুয়েল রানা বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় ৭ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতনামা কয়েকজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

[৫] আটককৃতরা হলো- আশুলিয়ার কলতাসূতি এলাকার এখলাস ব্যাপারীর ছেলে রফিকুল ইসলাম ও সুজন, মাদারীপুরের রাজৈর থানার তাতীকান্দার মৃত মোখলেস শেখের ছেলে কামাল, জামালপুরের ইসলামপুর পলকান্দা এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে সম্রাট আকবর, রংপুর জেলার পীরগঞ্জ থানার দশমুরা সাদুল্যাপুরের আমজাদ হোসেনের ছেলে রমজান, রাজবাড়ি জেলার পাংশা থানার সাধেরচড় এলাকার মো এখলাসের ছেলে রহিম এবং কিশোরগঞ্জ কটিয়াদী থানার মৃত ওয়াদুদের ছেলে মজনু।

[৬] মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আশুলিয়া থানার পুলিশ উপ পরিদর্শক (এস আই) আসওয়াদুর রহমান জানান, আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিনের রিমাণ্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এই হত্যাকাণ্ডে কারা জড়িত এবং কেন ও কি কারনে এই হত্যাকাণ্ড হয়েছে তা পরবর্তীতে তদন্ত সাপেক্ষে জানা যাবে।

[৭] প্রসঙ্গত, নিহত আসিফ (৭) শিমুলিয়া ইউনিয়নের পূর্ব কলতাসুতি এলাকার জুয়েল রানার ছেলে। সে স্থানীয় দিপারোজ স্কুলে দ্বিতীয় শ্রেণীতে লেখা-পড়া করতো। আসিফ গত ১১ অক্টোবর নিজ বাড়ির সামনে থেকে নিখোঁজ হয়। অনেক খোঁজাখুঁজির পরও তাকে না পেয়ে আশুলিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে স্বজনরা। পরে নিখোজের ২ দিন পর ওই এলাকায় গতকাল মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) সকালে একটি শ্রমিক কলোনির পাশে আসিফের মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে থানায় খবর দেয় স্থানীয়রা। সম্পাদনা: হ্যাপি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত