প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] টেকনাফে অস্ত্রসহ ৫ রোহিঙ্গা ডাকাত আটক, বাঁধা অবস্থায় বাংলাদেশী ৭ জেলে উদ্ধার

কায়সার হামিদ : [২] বাংলাদেশ কোস্টগার্ড বাহিনী বঙ্গোপসাগর থেকে অবৈধ অস্ত্রধারী ৫ জন রোহিঙ্গা ডাকাতকে আটক করেছে। এসময় তাদের নৌকা হতে ৭ জন বাংলাদেশী জেলেকে বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। আটককৃত ডাকাত, উদ্ধারকৃত জেলে এবং জব্দকৃত অস্ত্র ও অন্যান্য মালামাল পরবর্তী কার্যক্রমের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

[৩] বাংলাদেশ কোস্টগার্ড বাহিনী চট্রগ্রাম পুর্ব জোনের মিডিয়া কর্মকর্তা লেঃ কমান্ডার বিএন এম হায়াত ইবনে সিদ্দিক জানান, ১২ অক্টোবর ভোররাত ৩ টায় টেকনাফ কোস্টগার্ড স্টেশনের সদস্যরা নিয়মিত টহলে থাকাকালীন টেকনাফ থানাধীন নোয়াখালীপাড়া হতে ১২ নটিক্যাল মাইল দূরে সমুদ্র থেকে ৫ জন অস্ত্রধারী ডাকাতকে আটক করে। এসময় তাদের নৌকা হতে ৭ জন বাংলাদেশী জেলেকে বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও ডাকাতদের নৌকাটি তল্লাশী করে ২টি দেশীয় একনলা বন্দুক, ৮ রাউন্ডস কার্তুজ, ১০টি বিভিন্ন ধরনের বার্মিজ ধারালো অস্ত্র এবং ১টি ইঞ্জিন চালিত কাঠের নৌকা জব্দ করা হয়।

[৪] আটককৃত ডাকাতরা হচ্ছে মোঃ বাকগুল্লা (২২), মোঃ শুকুর (২০), রবি আলম (২২), নুরুল আমিন (৩০) ও শফি আলম (২০)। এরা সকলেই মিয়ানমারের আকিয়াব জেলার আড়িপাড়া অঞ্চলের বাসিন্দা। পরবর্তীতে উক্ত অভিযানে উদ্ধারকৃত বাংলাদেশী জেলেদের ডুবে যাওয়া একটি নৌকা উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত জেলেরা সকলেই টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের নোয়াখালীপাড়ার বাসিন্দা।

[৫] আটককৃত ডাকাত, উদ্ধারকৃত জেলে এবং জব্দকৃত অস্ত্র ও অন্যান্য মালামাল পরবর্তী কার্যক্রমের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড এর আওতাভুক্ত এলাকাসমূহে আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রন, জননিরাপত্তার পাশাপাশি দস্যুতা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন ও ডাকাতি দমন রোধে কোস্ট গার্ডের জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করে নিয়মিত অভিযান অব্যাহত আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। সম্পাদনা : আরাফাত

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত