প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মিলন পাঠান: অভিনন্দন শমী কায়সার

মিলন পাঠান: শমী কায়সার সম্প্রতি বিয়ে করেছেন। অভিনন্দন

একজন মাওলানার নাতনী শমী কায়সারের জন্য অনেক শুভকামনা।

১৯৪৭ সালে ভারত ভাগের পরে কলকাতা থেকে আলীয়া মাদ্রাসা ঢাকায় স্থানান্তরিত হয়। মাদ্রাসা স্থানান্তরের সঙ্গে অনেক শিক্ষকও স্থানান্তরিত হয়ে ঢাকায় চলে আসেন। মাওলানা মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ্ ছিলেন তাদের একজন। মাওলানা মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ্ সাহেবের আট সন্তানের মধ্যে একজন ছিলেন শহীদুল্লা কায়সার। যার প্রকৃত নাম আবু নঈম মোহাম্মদ শহীদুল্লা। শহীদুল্লা কায়সারের অপর ভ্রাতা জহির রায়হান।

একাত্তরের শহীদ শহীদুল্লা কায়সার ও জহির রায়হানের অবদান ও কীর্তি বলার অপেক্ষা রাখেনা।

ঢাকা আলীয়া মাদ্রাসার সনামধন্য শিক্ষক মাওলানা মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ্ সাহেবের নাতনী শমী কায়সার। শহীদুল্লা কায়সার ও পান্না কায়সার দম্পতির কন্যা শমী কায়সার। পান্না কায়সার ১৯৯৬-২০০১ সময়কালের সংসদ সদস্য। জহির রায়হানের ভাইঝি শমী কায়সার।

কলকাতা থেকে আরও যারা ঢাকা আলীয়া মাদ্রাসায় শিক্ষকতায় যোগ দিয়েছিলেন তাদের একজন ছিলেন মাওলানা মমতাজ উদ্দিন আহমেদ। ইনি ব্যারিস্টার মওদুদ আমেদ-এর পিতা। মাওলানা মমতাজ উদ্দিন আহমেদ এবং মাওলানা মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ্ পরস্পর মামা-ভাগ্নে ছিলেন। আগেকার মাওলানাদের সন্তানদের বিরাট একটা অংশ পরবর্তীতে কমিউনিস্ট কিংবা অন্য ঘরানার রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হয়েছিলেন। বাঙালি মুসলমানের এই একটা উল্লেখযোগ্য দিক।

পান্না কায়সারে বোনের জামাই বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক ডা: এ কিউ এম বদরুদ্দেজা চৌধুরী। চৌধুরী সাহেবের পিতা এডভোকেট কফিলউদ্দিন চৌধুরী সাহেব বৃটিশ আমলে শেরেবাংলার কৃষক প্রজা পার্টি, পাকিস্তান আমলে শেরেবাংলার কৃষক শ্রমিক পার্টি(ছাপ্পান্নতে দলত্যাগও করেন) এবং পরে আওয়ামী লীগের নেতা ছিলেন। এদশে আত্মীয়তা খুব গুরুত্বপূর্ণ, তাই এসবের উল্লেখ করলাম আর কি!!

আমাদের যখন বেড়ে ওঠা, তখন বিটিভি-কাল। বিটিভি’র নাটক প্রধান বিনোদন। সূবর্ণা মুস্তাফা পরবর্তী যাদের অভিনয় উল্লেখ করবার মতো শমী কায়সার তাদের অন্যতম। পঞ্চাশ পেরোনো শমী কায়সারের সঙ্গে নব্বইয়ের দশকের শমী কায়সারের পার্থক্য থাকাটাই স্বাভাবিক। কিন্তু আমাদের নাট্যরুচি গড়তে, অভিনয় রুচি গড়তে শমী কায়সারের ভূমিকা অনস্বীকার্য।

শুধু অভিনয় নয়, সকল প্রগতিশীল আন্দোলনে শমী কায়সার সোচ্চার বরাবরই।

কে বা কারা কিংবা কোন ধরনের মানুষেরা শমী কায়সারকে গালাগালি করছে, এটা বোধহয় বোঝার অপেক্ষা রাখে না।

দিনশেষে মানুষ ঘর চায়, নীড়ে ফিরতে চায়। একটা সংসার চায়। এটাই বিশ্বমানব জীবন-দর্শনের অপার রহস্য। শমী কায়সারও সংসার চায়, ঘর চায়।

প্রিয় শমী কায়সার, আমাদের শমী আপা, আপনার জীবন সুন্দর হোক। আপনাদের দাম্পত্য জীবন সুখের হোক।

আই মনপ্রাণ ভরি দুয়া কইরতাছি আফনাগোর লাগি…আপনার প্রথম নাটক নোয়াখালীর আঞ্চলিক ভাষার ছিল।

শুভকামনা নিরন্তর। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত