প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] নাগরানো-কারাবাখ এলাকায় যুদ্ধবিরতিতে রাজি আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান

আসিফুজ্জামান পৃথিল: [২] এই সিদ্ধান্তের কথা জানান রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ। মস্কোতে ১০ ঘণ্টা ধরে চলা ম্যারাথন সংলাপের পর এই সিদ্ধান্ত নেয় বিবাদরত দুই দেশ। প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে বিতর্কিত এলাকাটি নিয়ে যুদ্ধরত ছিলো দুই ইউরোপীয় দেশ। আল জাজিরা, ফ্রান্স ২৪

[৩] লাভরভ জানান ওই এলাকায় অন্তবর্তীকালীন মানবিক সহায়তা কার্যক্রম চালাবে রেডক্রস। শনিবার আন্তর্জাতিক সময় সকাল ৮টায় (বাংলাদেশ সময় বেলা দুটায়) যুদ্ধবিরতী কার্যকর হবার পরই সমস্ত দায়িত্ব তুলে দেয়া হয় রেডক্রসের হাতে।

[৪] আল জাজিরার মস্কো প্রতিনীধি আলেকসান্দ্রা স্তোজানোভিচ জানান, মানব সিজফায়ারের উল্লেখ করেই এই চুক্তি রা হয়েছে। তিনি বলেন, ‘দেখতে হবে যেভাবে সব কথা হয়েছে সেভাবেই যুদ্ধবিরতি কার্যকর করা হয় কিনা। যদি তারা বন্দী বিনিময় করেন এবং সত্যই আলোচনার টেবিলে ফিরতে চান, তবে দশকব্যাপী চলা সংঘাতের অবসান ঘটতে পারে।’

[৫] ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়ো এই সংঘাতে ৩ শতাধিক মানুষ মারা গেছেন। লাভরভ এই আলোচনার ব্যাপারে বিস্তারিত কিছুই জানাননি। তবে এটি জানা গেছে দুই দেশের মধ্যে অরগানাইজেশন ফর সিকিউরিটি অ্যান্ড কো অপারেশন ইন ইউরোপের (ওএসসিই) মিনস্ক গ্রুপ মধ্যস্ততাকারীর কাজ করবে।

[৬] আলোচনায় অংশ নেয়া আরমেনিয়ান পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোহরাব ম্লাতসাখনিয়ান এবং তার আজেরি প্রতিপক্ষ জেইহুন বেইরামভ গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেননি। এই সংঘাতের কারণে যুদ্ধ হলে তাতে আজারবাআজিানের ঘণিষ্ঠ মিত্র তুরস্ক এবং আর্মেনিয়ার প্রতিরক্ষা অংশীদদার রাশিয়ার যুক্ত হয়ে যাবার শঙ্কা দেখা দিয়েছিলো।

সর্বাধিক পঠিত