প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী, ক্ষমা চেয়েছেন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট

নূর মোহাম্মদ: [২] ফরিদপুরের নগরকান্দার স্কুলছাত্র অন্তর হত্যা মামলায় দুই আসামিকে জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। আসামিরা হলেন- আজিজুল শেখ ও আশরাফ শেখ। বৃহস্পতিবার বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের বেঞ্চ তাদের জামিন দেন।

[৩] এদিকে অল্প সময়ে আসামিদের জবানবন্দি গ্রহণ করার বিষয়ে হাইকোর্টে হাজির হয়ে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন ফরিদপুরের তৎকালীন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (বর্তমানে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাইনুল ইসলাম। তিনি আদালতে বলেন, ভুল হয়েছে। পরে আদলত তাকে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি দেন। এছাড়া এ বিষয়ে পরবর্তী শুনানির জন্য ১৯ নভেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

[৪] শুনানিতে আসামি পক্ষের আইনজীবী রুহুল কুদ্দুস কাজল বলেন, ফৌজদারি কার্যবিধি ও সংবিধানে বলা আছে কাউকে নিজের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিতে বাধ্য করা যাবে না। কিন্তু ১৬৪ ধারায় বাধ্য করা হচ্ছে। কোনদিন দেখিনি কোন ম্যাজিস্ট্রেট ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী নিতে অস্বীকার করেছেন। জবানবন্দী না দিলে আবার পুলিশের কাছে রিমান্ডে পাঠানো হয়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও বিচারকদের এসব ভূমিকায় বিচার ব্যবস্থার ওপর মানুষ আস্থা হারাচ্ছে।

[৫] কাজল পরে সাংবাদিকদের বলেন, এ মামলায় তিন আসামির জবানবন্দি একই ম্যাজিস্ট্রেট অল্প সময়ের ব্যবধানে রেকর্ড করেছেন। জবানবন্দি গ্রহণে আইনি প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হয়নি। তাই ওই জবানবন্দী গ্রহণকারী ওই ম্যাজিস্ট্রেটকে আদালত তলব করেছিলেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত