প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভারতের উত্তরপ্রদেশে ১১দিন পর নেয়া নমুনায় মেলেনি ধর্ষণের প্রমাণ, বিচারবিভাগীয় তদন্ত চায় পরিবার

লিহান লিমা: [২] ফরেন্সিক রিপোর্টে বলা হয়েছে, নির্যাতিতাকে ধর্ষণের কোনো ইঙ্গিত মেলে নি। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ১১দিনে সব প্রমাণ নষ্ট হওয়াই স্বাভাবিক। তাই রিপোর্টটি আদৌ নির্ভরযোগ্য নয়। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

[৩] গত ১৪ সেপ্টেম্বর ভারতের উত্তরপ্রদেশের হাথরসে ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় মাঠ থেকে দলিত তরুণীর দেহ উদ্ধার করে পরিবার। তাকে আলিগড়ের জওহরলাল নেহরু মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে ২২ সেপ্টেম্বর নিজের বয়ান রেকর্ড করেন তিনি। চারজন উচ্চবর্ণের তরুণ সংঘবদ্ধভাবে তাকে ধর্ষণ করে। ২৫ সেপ্টেম্বর তার নমুনা ফরেন্সিক ল্যাবে পাঠানো হয়। ওই তরুণী ১৪দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করার পর মারা যান। পুলিশ পরিবারকে না জানিয়েই তার মরদেহ দাহ করে। এই ঘটনা ভারতজুড়ে বিক্ষোভের জন্ম দেয়।এনডিটিভি

[৪]আলিগড় হাসপাতালের চিফ মেডিক্যাল অফিসার আজিম মালিক বলেন, ‘ধর্ষণের ৯৬ ঘণ্টার মধ্যে ফরেন্সিক নমুনা সংগ্রহ করাই নিয়ম। তাই এই রিপোর্টে ধর্ষণের প্রমাণ না মেলাটাই স্বাভাবিক।’

[৫] তবে উত্তরপ্রদেশের জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার বলেছেন, ধর্ষণ হয় নি। মানুষ জাত-পাতের বিষয়টি সামনে এনে উত্তেজনা বাড়াতে চাইছে। পুলিশের আচরণ নিয়ে তীব্র সমালোচনার মুখে রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ মামলার তদন্তের ভার সিবিআইকে দেয়ার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকে অনুরোধ করেছেন।

[৬]পরিবারের আইনজীবী সীমা কুশওয়া বলেন, তরুণীর পরিবারকে ক্রমাগত হুমকি দেয়া হচ্ছে। সম্পাদনা: ইকবাল খান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত