প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

টটেনহ্যাম কাছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের ৬-১ গোলে হার

 

ডেস্ক রিপোর্ট : ‘সেভেন আপ’ শব্দটা ফুটবলের সঙ্গে কীভাবে যেন জড়িয়েই গেল! বিশ্বকাপে জার্মানির বিপক্ষে ব্রাজিলের ৭ গোল হজমের পর শুরু, এই ক’দিন আগে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে বার্সেলোনার ৮ গোল হজমে যেন আরো জনপ্রিয় হয়েছে! তেমনই একটা ম্যাচের দুঃস্বাক্ষী হতে যাচ্ছিলো ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডও। দুর্ভাগ্যের ম্যাচে অল্পের জন্য রক্ষা পেয়ে গেছে তারা। ৬-১ গোলের হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয়েছে সোলশায়ার বাহিনীকে।

সুপার সানডের রাতটা এমন নিষ্ঠুর হবে ভেবেছিলেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড কোচ ওলে গানার সোলশায়ার? নিজেদের মাঠে এভাবে বিধ্বস্ত হতে হবে ভেবেছিলেন? মনে হয় না।

অন্যদিকে নিজের সাবেক ক্লাবের বিপক্ষেই ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বড় জয়টা পাবেন ভাবেননি হয়তো টটেনহ্যাম হটস্পার কোচ হোসে মরিনহোও! তবে দীর্ঘদিন পর ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ফেরাটা তার জন্য বেশ সুখকরই হয়ে রইলো।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কোচের পদ থেকে ছাঁটাই হওয়ার পর এই প্রথম ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে পা রাখলেন মরিনহো। সাবেক ক্লাবটির বিপক্ষে জয়ের ক্ষুধা ছিল। মনে কি কিছুটা ক্ষোভও জমে ছিল? কে জানে! তবে রেড ডেভিলদের ডেরায় ক্ষুধার্ত বাঘের মতো হামলে পড়লো স্পাররা।

 

বিগ ম্যাচের স্কোরশিটটা অবশ্য খোলে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডই। ১ম গোলটা করে তারা। ম্যাচের মাত্র ২ মিনিটের মাথায় পেনাল্টি থেকে গোল দিয়ে দলকে লিড এনে দেন ব্রুনো ফার্নান্দেজ।

এ লিড রেড ডেভিলরা ধরে রাখতে পেরেছে মাত্র ২ মিনিট। ম্যাচের ৪র্থ মিনিটের মাথায় একক প্রচেষ্টায় গোল করেন ডম্বেলে।

মিনিট তিনেক পর লিড নেয় টটেনহ্যাম। হ্যারি কেইনের পাস থেকে গোল করে এশিয়ান তারকা সন হিয়ং মিন।

এরপর কিছুক্ষণের গোল বিরতি। ম্যাচের ৩০ মিনিটের মাথায় গোল করেন হ্যারি কেইন। এবার গোলের যোগানদাতা সন।

৩৭ মিনিটে আবারো টটেনহ্যামের লিড। আবারো স্কোরশিটে নাম তোলেন সন হিয়ং মিন। যোগানদাতার নাম অরিয়ার। ৪-১ লিড নিয়ে বিরতিতে যায় দু’দল।

বিরতি থেকে ফিরেও একই ছন্দে স্পাররা। রেড ডেভিলরা যথারীতি কোনঠাসা। ৫১ মিনিটে স্পারদের গোল উৎসবে যোগ দেন অরিয়ার। স্কোরলাইন ৫-১!

৭৯ মিনিটে আরো একবার গোলের দেখা পান অধিনায়ক হ্যারি কেইন। পেনাল্টি থেকে করা তার গোলে ৬-১ লিড পায় টটেনহ্যাম।

এরপর আরো বেশকিছু সুযোগ পায় টটেনহ্যাম। তবে এই ম্যাচে বেশ সমালোচনার পাত্র হয়েছেন ম্যাচ রেফারি।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত