প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] তরুণ-যুবকরা ক্ষমতার স্বাদ পেয়ে মাদক, ধর্ষণ বা অর্থ উপার্জনে লিপ্ত হয়

শরীফ শাওন: [২] ভাড়াটিয়া, ভোক্তা ও নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতৃবৃন্দ বলেন, প্রবল ক্ষমতাধর ধর্ষক কারা? ছাত্র, বয়সে তরুণ-যুবক। ২৫ থেকে ৪০ বছর বয়সের মানুষরাই মোট সংখ্যার সর্বাধিক। তারা বশ্বিক ঘটনাপ্রবাহ ও কনজিউমারিজম ভিত্তিক সংস্কৃতি দেখে ভোগপ্রবণ বিকৃত মানসিকতা সম্পন্ন হচ্ছে।

[৩] নেতৃবৃন্দ বলেন, যোগ্যতা না থাকা ও উচ্চাকাঙ্খা তৈরি হওয়ায় নিজেদের সুবিধা হাসিলে তারা রাজনীতির ছত্রছায়া গ্রহণ করে। এই অপরাধীদের সঙ্গে রাজনীতি, আদর্শ, দর্শন, মূল্যবোধ, চেতনা ও কমিটমেন্টের কোনো সম্পর্ক নেই। তারা ক্ষমতার পালাবদলের সঙ্গে দল বদলায়।

[৪] তারা বলেন, কুচক্রী রাজনীতিবিদগণ সংখ্যায় নগণ্য হলেও এই তরুণ-যুবকদের কাজে লাগিয়ে তারা ক্ষমতাবান হয়ে উঠছে। তাদের পৃষ্ঠপোষকতায় তরুণরা বিপথগামী হয়ে উঠে। ক্ষমতা ও রাজনীতির আড়ালে একটি অপরাধচক্র প্রতিষ্ঠা পায়।

[৫] রোববার ভাড়াটিয়া, ভোক্তা ও নাগরিক অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ’র চেয়ারম্যান প্রবীণ সাংবাদিক কামরুল হুদা ও মহাসচিব সাংবাদিক নাছির উদ্দিন চৌধুরী এক যুক্ত বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।

[৬] বিবৃতিতে অভিযোগ জানিয়ে বলেন, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কিছু সদস্যও মাদক কারবারে জড়িত। যার নেপথ্যে রাজনৈতিক শক্তিও জড়িত বলে অভিযোগ আছে।

[৭] তারা দাবি জানিয়ে বলেন, সরকার ও প্রশাসনকে কঠোর হতে হবে। গড়ে তুলতে হবে সামাজিক প্রতিরোধ। মাদক মামলার বিচার দ্রুত সম্পন্ন করে অভিযুক্তদের কঠোর শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত