প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ১৮ রানে জিতেছে দিল্লি ক্যাপিট্যালস

রাহুল রাজ : [২] শারজার ছোট মাঠে খেলা, রান হবে প্রচুর- এমনটাও অনুমেয়ই ছিলো। তাই বলে ঠিক এতোটা পিটুনি হজম করতে হবে, তা হয়তো কল্পনা করেননি সুনিল নারিন, প্যাট কামিনসরা। বিশ্বের অন্যতম সেরা এ বোলারদের নিয়ে রীতিমতো ছেলেখেলা করেছেন দিল্লি ক্যাপিট্যালসের ব্যাটসম্যানরা।

[৩] কলকাতার জয়ে জন্য দরকার ছিল ২২৯ রানের বিশাল পাহাড় অতিক্রম করা। কিন্তু অনেক চেষ্টা করেও ৮ উইকেট হারিয়ে ২০ ওভারে কলকাতা ২১০ রান তুলতে সক্ষম হয়। কলকাতার পক্ষে নিশিত রানা সর্বোচ্চ ৫৮ রান নিজের নামে যোগ করেন। দিল্লির পক্ষে অ্যানরিচ নর্টজে ৩ টি উইকেট পতন করেন।

[৪] নিজেদের প্রথম তিন ম্যাচে সমান দুইটি করে জিতেছে কলকাতা নাইট রাইডার্স ও দিল্লি ক্যাপিট্যালস। চতুর্থ ম্যাচে মাঠে নেমে দিল্লিকে আগে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন কলকাতা অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক। আর এ আমন্ত্রণটিকে বড় সংগ্রহের সুযোগ হিসেবেই কাজে লাগিয়েছেন দিল্লি অধিনায়ক শ্রেয়াস আইয়ার।

[৫] প্রতিপক্ষ দলে সুনিল নারিনের মতো রহস্য স্পিনার, প্যাট কামিনসের মতো বিশ্বখ্যাত পেসার, সঙ্গে রয়েছেন কামলেশ নাগরকোটি, শিভাম মাভিদের মতো তরুণ তুর্কিরা। কিন্তু এদের কাউকেই পাত্তা দেননি শ্রেয়াস আইয়ার, পৃথ্বি শ’রা। কলকাতার বোলারদের ইচ্ছেমতো পিটিয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ২২৮ রানের পাহাড়সম সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছে দিল্লি ক্যাপিট্যালস। শ্রেয়াস আইয়ার ৩৮ বলে ৭ চার ও ৬ ছয়ের ৮৮ রানে অপরাজিত থাকতে হয় তাকে।
ম্যাচ সেরা : শ্রেয়াস আইয়ার

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত