প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ৩৭ জনকে টপকে পাকিস্তানের কোচ হলেন বারমুডার ক্রিকেটার

স্পোর্টস ডেস্ক: [২] পাকিস্তান নারী ক্রিকেট দলের কোচ হওয়ার জন্য আবেদন করেছিলেন ৩৮ জন নামী দামী ক্রিকেটার ও কোচ। যাদের মধ্যে ছিলেন ১৮ জন বিদেশী। তবে সবাইকে টপকে পাকিস্তান নারী ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন বারমুডার সাবেক অধিনায়ক ডেভিড হেম্প।

[৩] গত সপ্তাহে কোচ হওয়ার আবেদন করা সবার চূড়ান্ত সাক্ষাৎকার নেন পাকিস্তানের নারী উইং এর ভারপ্রাপ্ত প্রধান ও নারীদের নির্বাচন কমিটির চেয়ারম্যান উরুজ মমতাজ, পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান ও পাকিস্তানের হেড অব ইন্টারন্যাশনাল কোচ ডেভেলপমেন্ট গ্রান্ট ব্র্যাডবার্ন।

[৪] চূড়ান্ত সাক্ষাৎকার শেষে ইকবাল ইমামের স্থলাভিষিক্ত করে ডেভিড হেম্পকেই নিয়োগ দেয় পিসিবি। নিউজিল্যান্ডের মার্ক কোলসের পর দ্বিতীয় বিদেশী হিসাবে পাকিস্তান নারী দলের দায়িত্ব নিচ্ছেন হেম্প। দুই বছর কোচিং শেষে গেলবছরের অক্টোবরে দায়িত্ব ছেড়ে দেন কোলস। এরপর দেশী কোচদের দিয়েছি চলছিল পাকিস্তানের নারী ক্রিকেট দল।

[৫] ডেভিড হেম্পকে নিয়োগ দেওয়ার ব্যাপারে উরুজ মমতাজ বলেন, ‘ডেভিড ৫ বছর অস্ট্রেলিয়ায় মেলবোর্ন ও ভিক্টোরিয়া (নারী দল) দলের সঙ্গে কাজ করেছে। আমরা যে ব্যক্তি কে খুঁজছিলাম সেখানে সেই সবচেয়ে যোগ্য। সে তার অভিজ্ঞতা ও জ্ঞান আমাদের সিস্টেমে যোগ করতে পারবে, যা পাকিস্তান নারী দলের উন্নতিতে ভূমিকা রাখবে।’

[৬] তিনি আরও বলেন, ‘আমি নিশ্চিত আমাদের ক্রিকেটাররা ডেভিডের কাছ থেকে অনেক কিছু শিখতে পারবে। ডেভিডও আমাদের হাই পারফরম্যান্স সেন্টারের দারুণ কোচিং প্যানেলের (আতিক উজ-জামান, গ্রান্ট ব্র্যাডবার্ন, মোহাম্মদ ইউসুফ, মোহাম্মদ জাহিদ, সাকলাইন মুশতাক) সঙ্গ উপভোগ করবে।’

[৭] উল্লেখ্য, ২০০৬ সাল থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত বারমুডার হয়ে ২২ টি ওয়ানডে ও ২ টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন ডেভীড হেম্প। ৪ আন্তর্জাতিক ফিফটি ও ১ সেঞ্চুরির মালিক হেম্প বারমুডাকে নেতৃত্বও দিয়েছেন। এছাড়াও প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে কাউন্টিতে দারুণ পারফর্ম করেছিলেন তিনি। কোচ হিসেবে ভিক্টোরিয়া ও মেলবোর্ন স্টারসের নারী ক্রিকেট দলের ৫ বছর ধরে দায়িত্ব পালন করছিলেন হেম্প।- দ্যা গ্যালারি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত