প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] টানা কয়েক সপ্তাহের অচলাবস্থার পর বেলারুশের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা দিতে একমত ইউরোপিয় ইউনিয়ন

লিহান লিমা: [২] বিতর্কিত নির্বাচন ও বিক্ষোভকারীদের গণহারের গ্রেপ্তারের পর বেলারুশের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিতে সম্মত হয়েছে ইউরোপিয় ইউনিয়নের দেশগুলো। নির্বাচনে জালিয়াতি ও বিক্ষোভকারীদের গ্রেপ্তারের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকা বেলারুশের মোট ৪০ জন কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়া হলেও একনায়ক প্রেসিডেন্ট আলেক্সান্ডার লুকাশেঙ্কোর বিরুদ্ধে কোনো নিষেধাজ্ঞারোপ করা হয় নি। ডয়েচে ভেলে

[৩]ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট চার্লস মিখাইল সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা ব্যক্তিদের সম্পদ জব্দ করা হবে ও তাদের ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞারোপ হবে।’ লুকাশেঙ্কোর বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা না নেয়ার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ইইউ ব্লক পরিস্থিতি পর্যালোচনা করছে, যে কোনো মুর্হুতে পরিবর্তন আসতে পারে।’

[৪] জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মের্কেল এই নিষেধাজ্ঞাকে স্বাগত জানিয়ে বলেছেন, ‘এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ বার্তা দেবে। কানাডা ও যুক্তরাজ্য ও আলাদাভাবে বেলারুশের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞারোপ করেছে।’

[৫] এর আগে,ভূমধ্যসাগরের বিতর্কিত অঞ্চলে তুরস্কের গ্যাস অনুসন্ধান কার্যক্রমের প্রেক্ষিতে ইইউ ব্লকের পক্ষ থেকে শক্ত বার্তা না দেয়া পর্যন্ত সাইপ্রাস বেলারুশের নিষেধাজ্ঞার বিলে ভোটো দিয়ে আসছিলো। এই দুইটি বিষয়ের মধ্যে কোনো সম্পৃক্ততা না থাকলেও সাইপ্রাস বলেছে, কোনো মূলনীতির লঙ্ঘন হলে ইইউ’কে অবশ্যই পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

[৬]গত ৯ আগস্টের নির্বাচনের পর থেকেই বেলারুশে বিক্ষোভ চলছে। ইইউ’র ২৭টি সদস্য রাষ্ট্র নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করেছে। ১৯৯৪ সাল থেকে ক্ষমতায় থাকা লুকাশেঙ্কো ৮০ শতাংশ ভোট পাওয়ার দাবী করেছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত