প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মা হারা ৫ মাসের শিশুকে এক লাখ টাকা অনুদান দিলেন গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক

আসাদুজ্জামান বাবুল: [২] পেশাগত কাজ করার সময় ছাদ থেকে পড়ে গিয়ে নিহত শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেল কলেজের টেকনোলজিস্ট সুশমিতা মজুমদার ইভার ৫ মাসের শিশু রোহান দাসকে এক লাখ টাকা অনুদান দিলেন গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা।

[৩] বৃহস্পতিবার সকালে রোহানের পক্ষে এক লক্ষ টাকার এ সঞ্চয় পত্র গ্রহন করেন রোহানের দাদা গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালের চিকিৎসক অনুপ কুমার মজুমদার। এ সময় গোপালগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা: নিয়াজ মোহাম্মদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক কাজী শহিদুল ইসলাম ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো, মামুন ও ডা. অনুপের স্ত্রী কল্পনা বিশ্বাস ছাড়াও আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

[৪] গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা বৃহস্পতিবার বিকেল ৪ টা ২৩ মিনিটের সময় আমাদের এ প্রতিনিধিকে জানিয়েছেন, গত সেপ্টেম্বর মাসের ৫ তারিখে শিশু রোহানের মা শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেল কলেজের টেকনোলজিস্ট সুশমিতা মজুমদার ইভা পেশাগত কাজ করার সময় ৬ তলা ছাদ থেকে পড়ে গিয়ে মারা যায়।

[৫] ৪ মাস ৫ দিন বয়সের সময় মা হারা শিশু রোহানের পাশে দাড়াতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করে জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা বলেন, পেশাগত দায়িত্ব পালন কালে ছাদ থেকে পড়ে গিয়ে নিহত শিশু রোহানের নামে আমরা এক লক্ষ টাকার একটি সঞ্চয়পত্র খুলে দিয়েছি। এ কথা বলার সময় আবেগ আপ্লুত জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা শিশু রোহানকে কোলে নিয়ে বুকে জড়িয়ে ধরে মায়ের মমতা দিয়ে আদর করে নিজেও কেঁদেছেন অপরদেরও কাঁদিয়েছেন।

[৬] নিহত সুশমিতার কাকা ডা. অনুপ কুমার মজুমদার বলেছেন, গোপালগঞ্জের জেলা প্রশ্সাক শাহিদা সুলতানা মা হারা শিশু রোহানকে কোলে নিয়ে বুকে জড়িয়ে ধরে এক লক্ষ টাকার একটি সঞ্চয় পত্র দিয়ে আর্শিবাদ করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। সম্পাদনা: সাদেক আলী

 

 

সর্বাধিক পঠিত