প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আতিক খান: কন্যা দিবসের পাশাপাশি পুত্রবধূ দিবস দরকার

আতিক খান: কন্যা দিবস পালন করতে গিয়ে নিজের কন্যাকে নিয়ে সবাই ফেসবুকে লিখছে। পরের কন্যাকে নিয়ে সেরকম দেখিনি। পরের কন্যা যদি আমার ঘরে ছেলের বউ হয়ে আসত, আমি ওকে নিজ মেয়ের চাইতেও বেশী আদর-যত্ন করতাম।৷ নিজ মেয়ে তো বাবা-মায়ের বন্ধু হওয়া, বিভিন্ন কাজে সাহায্য করা কিংবা সেবা যত্ন করা অস্বাভাবিক কিছু না৷ এগুলো বরং ওদের ভালবাসার প্রতিদান কিংবা,দায়িত্ব-কর্তব্যের মধ্যেই পড়ে।
কিন্তু পরের কন্যার জন্য আমি জীবনে কি করেছি? কিছুই না। অথচ মেয়েটা আমাদের সংসারে এসে আব্বু-আম্মু ডাকবে, আমাদেরকে সময় দিবে, মাঝে মধ্যে চা-নাস্তা বানিয়ে দিবে আর অনেক বেশী ভাল স্বভাবের হলে হয়ত সেবা-যত্নও করবে। নিজের কন্যা অন্যের ঘরে চলে যাবে আর এই পরের কন্যাটা এসে নিজের কন্যার দায়িত্ব বাকি জীবনের জন্য পালন করবে।
এই সার্ভিস গুলো আমরা সাধারণত টাকার বিনিময়ে কিনি। সেটা রেস্টুরেন্ট হতে হোক কিংবা হাসপাতাল। শুধু এটুকুতেই আমরা সন্তুষ্ট নই, আমরা চাই মেয়েটা সাথে করে ফার্নিচার, গহনা আর টাকা-পয়সাও ট্রাকে ভরে নিয়ে আসবে৷ আমরা চাই, আমাদের কথায় মেয়েটা কান ধরে উঠবস করবে আর প্রয়োজন হলে ওকে সোজা করার জন্য ডান্ডা দিয়ে পিটিয়ে হাড্ডি গুঁড়ো করে দিব কিংবা গায়ে কেরোসিন ঢেলে দিব অথবা ফ্যানের সাথে ঝুলিয়ে আত্মহত্যা বলে প্রচার করব।
কোনদিন শুনেছেন, নিজ কন্যার সাথে কেউ এরকম আচরণ করেছে? বৈষম্যের সর্বোচ্চ স্তরে এই বাঙালি সমাজের অবস্থান। কন্যাদিবস তো আছেই, আমাদের সমাজের জন্য পুত্রবধূ দিবস আরো বেশী দরকার, প্রতিমাসেই একদিন করে পালিত হওয়া দরকার। পুত্রবধূ কিংবা পরের কন্যা দিবস পালনের অপেক্ষায় রইলাম। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত