প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বাগেরহাটে কাতার চ্যারাটির অর্থায়নে সুপেয় পানি পাচ্ছেন কয়েক হাজার মানুষ

শেখ সাইফুল ইসলাম কবির : [২] বাগেরহাটের সদর উপজেলার বেমরতা ইউনিয়নের বিজয়পুর গ্রামে প্রকল্পের আওতায় তীব্র লবনাক্ত এই এলাকায় একটি সোলার নলকুপ স্থাপন করে ১টি ওভারহেডটেংকি হতে আড়াই কিঃমিঃ পাইপ লাইন করে ৩০টি পানি সরবরাহের পয়েন্ট করে প্রায় ৩হাজার মানুষের জন্য খাবার সুপিয় পানির ব্যাবস্থা করেছে কাতার চ্যারাটি।

[৩] সরেজমিনে অনুস›দ্ধানে জানা গেছে কাতার চ্যারাটির অর্থায়নে চলতি বছর এই প্রকল্পটির নির্মান করেছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান বাগেরহাটের স্বপনীল এন্টারপ্রাইজ । বাগেরহাটের বেমরতা ইউনিয়নের ২নং বিজয়পুর গ্রামের একটি সৌর বিদুৎ চালিত টাওয়ার নির্মান করে প্রতি ১০টি বাড়ি পরপর ১টি পানি সরবরাহের পয়েন্ট নির্মান করে পাইপ লাইনের মাধ্যমে গ্রামের ২.৫ কিঃমিঃ রাস্তার পাশে মোট ৩০টি পানি সরবরাহের পয়েন্ট নির্মান করা হয়েছে। যার থেকে এই গ্রামের প্রায় ৩ হাজার মানুষ বাড়ীর কাছে বিনা মূল্যে পাচ্ছে সুপিয় খাবার পানি।

[৪] স্থানীয় বাসি›দ্ধা কবির হাওলাদার বলেন, এই গ্রামের পুকুরের পানি লবনাক্ত হওয়ায় ও গভীর নলকুপ স্থাপন করতে বারবার চেষ্টা করেও ব্যার্থ হওয়ায় ইতি পূর্বে তীব্র সুপীয় পানির সংকট ছিল। কাতার চ্যারিটির এই প্রকল্প বাস্তবায়ন হওয়ায় আমরা খুব খুশি হয়েছি।

[৫] স্থানীয় মসজিদের মোয়াজেম আবু হানিফ বলেন, আগে মিষ্টি পানি আনতে ৩মাইল দূরে যাইতে হত, এখন কাতার চ্যারাটি এই সোলারের মাধ্যমে গ্রামের সব খানে মিষ্টি খাবার পানি পাওয়া যাচ্ছে, তিনি কাতার চ্যারাটির এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন।

[৬] এবিষয়ে জানতে চাওয়া হলে বেমরতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনোয়ার হোসেন টগর বলেন, আমার ইউনিয়নটি দড়াটানা নদীর পাশে অবস্থিত তাই আমার এলাকার বিজয়পুর সহ বেশ কয়েকটি গ্রামের মানুষের যুগযুগ ধরে সুপেয় খাবার পানির সমস্যা ছিল সম্প্রতি কাতার চ্যারিটির অর্থায়নে ও উদ্যোগে এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করে বিজয়পুরের প্রায় ৩হাজার মানুষের খাবার পানির ব্যাবস্থা করেছে এতে বিজয়পুর বাসী খুব উপকৃত হচ্ছে। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত