প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের শ্রীলঙ্কা সফর আপতত বাতিল ঘোষণা

এল আর বাদল: [২] শেষ পর্যন্ত শ্রীলঙ্কা সফর ইস্যুতে হালে পানি পেলো না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। তাই আপতত বাংলাদেশ দলের সফর বাতিলের ঘোষণা দিয়েছে দেশীয় ক্রিকেটের এই শাসক সংস্থা।

[৩] সোমবার (২৮ সেপ্টেম্বর) বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন সাংবাদিকদের বলেছেন, দেখুন লঙ্কা সফরে যাওয়ার শতভাগ সিদ্ধান্ত ছিলো আমাদের। কিন্তু লঙ্কা বোর্ডের কোয়ারেন্টাইন ইস্যুর সমাধান না হওয়ায় হালে পানি জুটলো না। তাই আপাতত শ্রীলঙ্কা যাচ্ছে না বাংলাদেশ ক্রিকেট দল।

[৪] পাপন আরো বলেন, ওরা ( শ্রীলঙ্কা বোর্ড ) অনেক গুলো শর্ত মেনে নিয়েছে, কিন্তু যেটা আসল সেটা মানেনি। সেটা হলো ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন। আমরা জানিয়ে দিয়েছি ১৪ দিন সম্ভব না। পরিস্থিতি যখন ভালো হবে তখন হয়তো সফর হবে।

[৫] এর আগে নানা শর্ত মেনে বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কা সফরে যাবে নাবাংলাদেশ ক্রিকেট দল। নাজমুল হাসানের এই ঘোষণার পর দুই বোর্ডই অভ্যন্তরীণ সমস্যা সমাধানের জন্য উঠেপড়ে লেগেছিলো। যদিও সমাধান আসেনি।

[৬] শ্রীলঙ্কার কোভিড-১৯ টাস্কফোর্স বাংলাদেশের সফর নিয়ে কোনো আশাব্যঞ্জক সমাধানও দিতে পারেনি। বরং বাংলাদেশকে নানা ছাড় দিয়ে শ্রীলঙ্কায় নেওয়ার যে ফর্মুলায় এসএলসি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন নিয়েছিল, সেটি আবার খারিজ করে দিয়েছে কোভিড টাস্কফোর্স।

[৭] দুই দেশের বোর্ড এক্যমতে তো আসেইনি বরং লঙ্কা বোর্ডের তরফ থেকে সিরিজ স্থগিতের হুমকি দেয়া হয়েছিলো। কোয়ারেন্টাইন নিয়ামবলিতে শিথিলতা না আসায় সফর বাতিলের সিদ্ধান্তটি নিতে হয়েছে বিসিবির। লঙ্কান বোর্ড বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের ১৪ দিনের কোয়ারিন্টানে থাকার কথা বলে। বিসিবি চায় ৭ দিনের কোয়ারিন্টাইন। বাকি সাত দিন অনুশীলনে ব্যয় করবে। কিন্তু বিসিবির কথা না রেখে লঙ্কান বোর্ড তাদের সিদ্ধান্তে অটল থাকে। যে কারণে সৃষ্টি হয় লঙ্কা সফর নিয়ে জটিলতা।

সর্বাধিক পঠিত