প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এবার বিট কয়েনের দরপতন

ডেস্ক রিপোর্ট: করোনা মহামারির ধাক্কা লেগেছে বিশ্ব অর্থনীতিতে। এটি পুরাতন সংবাদ। তবে বিভিন্ন দেশের মুদ্রার ও স্বর্ণের দরপতন হলেও বিট কয়েন বা অনলাইন মানির বাজার লড়াই করছিল করোনাকালীন মন্দার সঙ্গে। এবার সেই লড়াইয়ে কিছুটা ছন্দপতন দেখা দিল। ডিজিটাল মুদ্রা বিট কয়েন এক সপ্তাহের ব্যবধানে এক-তৃতীয়াংশ কমেছে।সময়টিভি

গত সপ্তাহের শুরুতে বিট কয়েনের দাম ছিল ২০ হাজার ডলারে উঠা-নামা করছিল। কিন্তু রেকর্ড পতনে শুক্রবার মুদ্রাটির দাম ১১ হাজার ডলারের নিচে নেমে আসে। এ মুদ্রায় বিনিয়োগের ব্যাপারে বিশ্লেষকরা সম্প্রতি সতর্ক করে দিচ্ছিলেন। এর মধ্যেই গত কয়েক দিন ধরে এর দাম পড়তে শুরু করেছে। এখনও পতন অব্যাহত।

এ বছরের শুরুর দিকে মুদ্রাটির দাম ছিল এক হাজার ডলারের মতো। তারপর থেকে এর মূল্য হু হু করে বাড়তে থাকে। জুনে এক লাফে এর দাম দশ হাজার ডলার বৃদ্ধি পায়। নভেম্বর থেকে গত সপ্তাহ পর্যন্ত এর দাম বাড়ছিল রকেট গতিতে।

ক্রিপ্টোকারেন্সি-সংক্রান্ত ওয়েবসাইট ক্রিপ্টোকমপেয়ারের প্রতিষ্ঠাতা চার্লস হাটার বলেছেন, নজিরবিহীন উত্থানের পর দাম এখন কিছুটা কমবে; কারণ আবেগের পরিবর্তন ঘটেছে। চড়া দাম হওয়ায় বাজারে অনেকেই বিটকয়েন বিক্রি করে দিয়ে অর্থ তুলে নিচ্ছে। ফলে এখন তার দাম পড়ছে। মুদ্রাটির উৎস সম্পর্কে খুব কমই বোঝা যায় এবং ব্যবহারও খুব সীমিত। ডেনমার্কের কেন্দ্রীয় ব্যাংক বিটকয়েনকে ভয়াবহ এক ‘জুয়া’ বলেও সবাইকে সতর্ক করে দিয়েছে।

গত সপ্তাহে ব্রিটেনের অর্থনৈতিক নিয়ন্ত্রক প্রতিষ্ঠানের প্রধানও বিনিয়োগকারীদের সতর্ক করে দিয়ে বলেছিলেন, ‘সব অর্থ হারানোর জন্য’ প্রস্তুত থাকতে।

সর্বাধিক পঠিত