প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পতনের সপ্তাহেও পুঁজিবাজারে ফিরেছে ১৭ হাজার কোটি টাকা

মো. আখতারুজ্জামান : [২] টানা অনেকে দিনে পরে বিদায়ী সপ্তাহটি পতনে শেষ হয়েছে পুঁজিবাজারের লেনদেন। আলোচ্য সময়ে দেশের উভয় পুঁজিবাজারের সব সূচকের সঙ্গে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। তবে সপ্তাহটিতে বিনিয়োগকারীদের বাজার মূলধন আগের সপ্তাহের তুলুনায় ৩ হাজার কোটি টাকা বেশি ফিরে পেয়েছে।

[৩] জানা গেছে, চলতি সপ্তাহে উভয় পুঁজিবাজার মিলে ১৭ হাজার ২১৪ কোটি ৯ লাখ ৫ হাজার টাকা পুঁজিবাজারে ফিরে এসেছে। আর আগের সপ্তাহে পুঁজিবাজারে ফিরেছিল ১৪ হাজার ১১১ কোটি ২২ লাখ ৬২ হাজার টাকা।

[৪] এর মধ্যে ডিএসইতে সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরু আগে বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ৮৫ হাজার ৬৩২ কোটি ৭১ লাখ ৪৮ হাজার টাকায়। আর সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস লেনদেন শেষে বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৯৪ হাজার ৬৫১ কোটি ৬৩ লাখ ২৩ হাজার টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে বাজার মূলধন ফিরেছে ৯ হাজার ১৮ কোটি ৯১ লাখ ৭৫ হাজার টাকা।

[৫] আর সিএসইতে সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস লেনদেন শুরু আগে বাজার মূলধন ছিল ৩ লাখ ১৬ হাজার ৪৩৩ কোটি ৯৯ লাখ ৭০ হাজার টাকায়। আর সপ্তাহের শেষ কার্যদিব লেনদেন শেষে বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ২৪ হাজার ৬২৯ কোটি ১৭ লাখ টাকায়। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসইতে বাজার মূলধন ফিরেছে ৮ হাজার ১৯৫ কোটি ১৭ লাখ ৩০ হাজার টাকা।

[৬] বিদায়ী সপ্তাহে ৫ কার্যদিবসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে ৪ হাজার ৫৭৩ কোটি ৭২ লাখ ৭০ হাজার ৩৯৩ টাকার লেনদেন হয়েছে। যা আগের সপ্তাহ থেকে ১ হাজার ৬১ কোটি ৬০ লাখ ৫১ হাজার ২৪৩ টাকা কম হয়েছে। আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৫ হাজার ৬৩৫ কোটি ৩৩ লাখ ২১ হাজার ৬৩৬ টাকার ।

[৭] ডিএসইতে বিদায়ী সপ্তাহে গড় লেনদেন হয়েছে ৯১৪ কোটি ৭৪ লাখ ৫৪ হাজার ৭৮ টাকার। আগের সপ্তাহে গড় লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ১২৭ কোটি ৬ লাখ ৬৪ হাজার ৩২৭ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইতে গড় লেনদেন ২১২ কোটি ৩২ লাখ ১০ লাখ ১০ হাজার ২৪৮ টাকা কম হয়েছে।

[৮] সপ্তাহের ব্যবধানে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১২৫.৮৮ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৯৭৮.৭৭ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ৩৬.৭৬ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ১২৬.৩০ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৬০.৪১ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৭০১.১৯ পয়েন্টে।

[৯] বিদায়ী সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৩৫৯টি প্রতিষ্ঠান শেয়ার ও ইউনিট লেনদেনে অংশ নিয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে দর বেড়েছে ১২৫টির, কমেছে ২২৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১০টির শেয়ার ও ইউনিট দর।

[১০] অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে বিদায়ী সপ্তাহে টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ১৩১ কোটি ৯৮ লাখ ৮৮ হাজার ৬৪ টাকার। আর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ১৭৫ কোটি ৪১ লাখ ২৩ হাজার ৮৩৮ টাকার। অর্থাৎ সপ্তাহের ব্যবধানে সিএসইতে লেনদেন ৪৩ কোটি ৪২ লাখ ৩৫ হাজার ৭৭৪ টাকা কমেছে।

[১১] সপ্তাহটিতে সিএসইর সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩৫৪.৪৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ২১৯.২৩ পয়েন্টে। সিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে সিএসসিএক্স ২২৮.০৮ পয়েন্ট কমে ৮ হাজার ৫২৮.৮৩ পয়েন্টে, সিএসইর-৩০ সূচক ৩৭৪.৭৫ পয়েন্ট কমে ১১ হাজার ৯১৩.৬৯ পয়েন্টে, সিএসই-৫০ সূচক ৩৯.১৪ পয়েন্ট কমে ১০২৩.৪৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

সর্বাধিক পঠিত