প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] রুথ গিনসবার্গের শেষ ইচ্ছে পূরণের কোনও ইচ্ছেই নেই ট্রাম্পের [২] নির্বাচনের আগেই শূন্যপদে নিয়োগ দিতে চান

সালেহ্ বিপ্লব: [৩] যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে প্রবীণ বিচারপতি ছিলেন তিনি। সেই সঙ্গে সুপ্রিম কোর্টের দ্বিতীয় নারী বিচারপতি। গত শুক্রবার ৮৭ বছর বয়সে মারা যাওয়া এই এসোসিয়েট জাস্টিস ছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কট্টর সমালোচক। আর এমন এমন সব কথা তিনি প্রকাশ্যেই বলতেন, ঠিক ঠিক বিঁধতো প্রেসিডেন্টের গায়ে। জবাবও দিতেন টুইটারে। স্পুৎনিক

[৪] ২৭ বছর দায়িত্বপালন করে যাওয়া এই বিচারপতির নাতনি ক্লারা স্পেরা জানিয়েছেন, মৃত্যুর আগে একটি অভিপ্রায় জানিয়ে গেছেন রুথ। নতুন প্রেসিডেন্ট আসার আগে যেনো তার পদে কাউকে না নেয়া হয়।

[৫] সিনেটের সংখ্যালঘু দলের নেতা চাক শুমার সদ্য প্রয়াত বিচারপতির শেষ ইচ্ছা পূরণের পক্ষে মত দিয়েছেন। ৩ নভেম্বরের নির্বাচনে ট্রাম্পের ডেমোক্রেট প্রতিপক্ষ জো বাইডেনেরও একই অভিমত। বিবিসি

[৬] তবে ট্রাম্পের ইচ্ছা ভিন্ন। তিনি চাইছেন যতোদ্রুত সম্ভব রুথের শূন্যস্থান পূরণ করতে। কালমাত্রও বিলম্ব না করার পক্ষপাতী মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

[৭]যুক্তরাষ্ট্রের আধুনিক ইতিহাসে রুথ গিনসবার্গ ছিলেন অন্যতম প্রধান নারীবাদী। উদারমনা হিসেবে খ্যাতি ছিলো তার, তাকে বলা হতো ‘লিবারেল আইকন’। তার প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানাতে সুপ্রিম কোর্ট ভবনের সামনে জড়ো হন ভক্ত সমর্থকরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত