প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বড়লেখায় মধ্যযুগীয় কায়দায় হাত-পা ভেঙে জিহ্বা কেটে নির্যাতন , বৃদ্ধের মৃত্যু

স্বপন দেব: [২] মৌলভীবাজারের বড়লেখায় উপজেলায় মধ্যযুগীয় কায়দায় অমানবিক নির্যাতনে গুরুতর আহত বৃদ্ধ আমির উদ্দিন সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ৭ দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) মৃত্যুকে বরণ করে নিলেন।

[৩] অভিযোগে জানা যায়, বাহাদুরপুর ইউপির বাউরিলখাল এলাকায় গত ৮ সেপ্টেম্বর রাতে অস্থায়ী বসতঘরে আমির উদ্দিন ও তার স্ত্রী বিলকিছ বেগমের ওপর অতর্কিত হামলা চালায় স্থানীয় এবাদ আহমদ বাপ্পী, আছার উদ্দিন, দুদু মিয়া, আবদুল্লাহ, রাজু আহমদ, হোসেন, আবদুস শুকুর। তারা বিলকিছ বেগম ও আমির উদ্দিন (৬৫)কে বাউরিলখালে পিটিয়ে আহত করে।

[৪] বিলকিছ বেগম চিৎকার করলে তার চুল কেটে রাস্তায় ফেলে রেখে আমির উদ্দিনকে পাশের সাধুর কালীবাড়ি টিলায় নিয়ে উপর্যুপরি আঘাত তার দুই পা, দুই হাত, কোমর ভেঙে দেয়। মাথার একপাশ দিয়ে শিকল ঢুকিয়ে আরেক পাশ দিয়ে বের করে, জিহ্বার এক ইঞ্চি পরিমাণ কেটে ফেলে। দুই কানের ভেতরে ছিদ্র করে, ঘাড় ভেঙে দেয়।

[৫] সন্ত্রাসীরা মৃত ভেবে আমির উদ্দিনকে ফেলে যায়। ভোরে এলাকার লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় চিকিৎসকরা তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

[৬] নির্যাতনের ঘটনার দুই দিন পর আহত আমির উদ্দিনের মেয়ে জেনেফা বেগম ৭ সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছে। কি কারণে সন্ত্রাসীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা এখনও জানা যায়নি। তবে পুলিশ এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

[৭] থানার ওসি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার বুধবার জানান, ঘটনাটি অত্যন্ত অমানবিক। মামলা দায়েরের পর থেকে আসামিদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত