প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

লীনা পারভীন: একটি ছবি ও আমাদের উচ্ছাস

লীনা পারভীন: আমরা নারীদের যেকোনো এগিয়ে যাওয়ায় অতি উচ্ছসিত হই আজকাল। কেন? যে কাজটি একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়ায় হবার কথা সেটিকেই আমরা অতিরিক্ত পাওয়া বলে প্রতিক্রিয়া দেখাই। আমি ছোটবেলায় সবসময় ডাঙ্গুলি, ক্রিকেট, সাতচাড়া, ব্যাডমিন্টন ইত্যাদি খেলা খেলতে খেলতে বড় হয়েছি। আমার বিশ^াস যাদের সুযোগ ছিলো তাদের প্রায় সবাই একইভাবে বেড়ে উঠেছে। তবে আজকে কেন একজন বোরকায় আবৃত নারীকে ক্রিকেট বল হাতে দেখে অপার সৌন্দর্য খুঁজে পাই আমরা? কী সৌন্দর্য আছে ওখানে যখন আমাদের মেয়েরা ফুটবল, ক্রিকেট মাঠ জয় করছে।

তাহলে কি অবচেতন মনে আমরা নারীকে কাপড়ে আবৃত্ত থাকাকেই বাস্তবতা বলে মেনে নিয়েছি যে একজন মা তার ছোট বাচ্চাকে সঙ্গ দিতে হাতে ব্যাট বল তুলে নিলো বলে ব্রাভো দেওয়া শুরু করলাম, এমনকি এটাকে নিউজও বানিয়ে দিলাম।

অবাক হবার মতোই ঘটনা যে আমরা এই ছবিকে আদর্শ ধরে সালমা, জাহানারা বা পাহাড়ের সেই মেয়েটির আন্তর্জাতিক ফুটবলাঙ্গনের রেফারি হবার যোগ্যতা ও তাদের এগিয়ে যাওয়াকে হাইলাইট করতে পারছি না। এ আমাদের চিত্তের দুর্বলতাকে প্রকাশ করে। বাংলাদেশ এখনো মৌলবাদী রাষ্ট্র বা আফগান বা সৌদি হয়ে যায়নি যেখানে একজন নারীর গাড়ি চালানোই বিপ্লব বা আন্তর্জাতিক মিডিয়ার আলোচনার বিষয় হতে পারে। দুঃখিত, এমন ছবির মাঝে সৌন্দর্য বা বিস্ময় খুঁজে পেতে গিয়ে আপনারা বাংলাদেশকেই খাটো করছেন না তো? আমাদের নারীরা কি এতোটাই পিছিয়ে আছে? ভাব্বেন দয়া কর। নারীরা আপনাদের কাছে সম্মান চায়, করুণা নয়। মানসিকতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করে এমন উচ্ছাস সমাজের জন্য ক্ষতিকর। ফেসবুক থেকে

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত