প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শাহানাজ খুশি: সুতীব্র চিৎকার করে আপনার সুস্থতা চাই ওয়াহিদা আপা

শাহানাজ খুশি: উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে, একজন ইউএনও হয়ে উঠতে কতোদিন লাগে। কতোটা মেধা এবং যোগ্যতা লাগে? একজন সন্ত্রাসি হয়ে উঠতে কতোদিন লাগে। কোনো যোগ্যতা। সে ইউএনও যদি নারী হয়। তাহলে কিসের মধ্যে দিয়ে আসতে হয়। সংসার, সন্তান,শ্বশুরবাড়ি, নানান সামাজিকতা সম্পন্ন করে, নিজের কাজের দায়িত্ব। খবরে যখন কয়েকবার দেখছিলাম। দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটের ইউএনও মহোদয়কে, রাতের বেলা তার বাসায় ঢুকে হাতুরি দিয়ে পিটিয়ে মাথা থেঁতলে দিয়েছে। মাথার খুলি মগজের ভেতর ঢুকে গেছে। ইতিমধ্যে এক সাইড কাজ করছে না, অবশ্যই। এক ধরনের অচেতন অবস্থা। অপারেশন না করলে বাঁচবে না, আবার শরীরের অবস্থা অপারেশনের মতো না। দেশের বাইরেও নেবার অবস্থায় নেই। বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দীন-মোহাম্মদসহ সবার বক্তব্য গিললাম আর তাদের মন্তব্যের ফাঁক গলে একটু আশার আলো খুঁজলাম। নাহ, হতাশায় ডুবলাম। মুক্তিযোদ্ধা বাবার আদরের কন্যা তিনি। বাবা সাথেই ছিলেন। বাবাকেও বেধড়ক হাতুড়িপেটা করছে। তিনিও চিকিৎসাধীন। যদি ধরাও পরে, যদি তার ফাঁসিও হয়, সেটা কী এই ইউএনও মহোদয়ের মেধার শুন্যস্থান পুরণ করতে পারবে। তীব্র ঘৃনা এবং প্রতিবাদ করছি। সে সন্ত্রাসি ধরা পড়বে অথবা বিচার কী হবে জানি না। সুতীব্র চিৎকার করে আপনার সুস্থতা চাই আপা। আপনি বেঁচে উঠুন আপনার সন্তানের জন্য, আপনার মুক্তিযোদ্ধা পিতার পাঁজরের শান্তির জন্য। (বিঃ দ্রঃ শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত উনার অপারেশন সফল হয়েছে। কিন্তু ৭২ ঘন্টার আগে শংকামুক্ত নয়।)  ফেসবুক থেকে

 

সর্বাধিক পঠিত