প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সুইডেনের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ফ্রেড্রিক বললেন ট্রাম্প ‘স্বৈরাচারী রাজা’

রাশিদুল ইসলাম : [২] সুইডেনের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও মডারেট পার্টি নেতা ফ্রেড্রিক রেইনফেল্ড বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রের গণতন্ত্রের জন্যে হুমকি এবং তিনি পুনরায় প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে দেশটিতে একনায়কতন্ত্রের পূর্ণ বিকাশ ঘটবে। স্পুটনিক

[৩] যুক্তরাষ্ট্রের মিত্রদেশ হওয়া সত্ত্বেও সুইডেনের মডারেট নেতারা এখন ট্রাম্প সম্পর্কে খোলামেলা দ্বন্দ্বপূর্ণ বক্তব্য রাখছেন। বিশেষ করে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে সুইডেনের রাজনৈতিক দলের নেতাদের বক্তব্য কার্যত যুক্তরাষ্ট্রের ডেমোক্রেটদের পক্ষে যাচ্ছে।

[৪] এক টেলিভিশন বিতর্কে ক্রিস্টিয়ান ডেমোক্রেট জোহান ইনগেরো মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের বিরুদ্ধাচারণ করে বলেন তার আচরণে অনেক স্বৈরাচারী মনোভাব সুষ্পষ্ট। তিনি চান অন্ধ আনুগত্য, স্বাধীন মতামত পছন্দ করেন না, জনগণকে সেবার পরিবর্তে সরকারি কর্মকর্তারা তাকে অনুসরণ করুক এটা চান। ফ্রেড্রিকও বলেন ট্রাম্প স্বাধীন ও নিরপেক্ষা মিডিয়া পছন্দ করেন না। মর্যাদা দিতে জানেন না। ট্রাম্প ব্যক্তিগত প্রেয়সী ও পারিবারিক সদস্যদের অফিসে মিশিয়ে ফেলেছেন।

[৫] ইনগেরো আরো বলেন ট্রাম্প ‘মুডি’ ও ‘উদ্ভট’। তিনি তার প্রতিপক্ষকে এমনভাবে প্রকাশ করেন যা সম্পূর্ণ নিন্দনীয় পর্যায়ে চলে যায়। বাকস্বাধীনতা ও ভোটাধিকারকে ট্রাম্প খর্ব করতে চান। এবং তা হুমকির মুখে পড়েছে।

[৬] ফ্রেড্রিক বলেন মার্কিন সংবিধান অনুসারে দেশটির প্রতিষ্ঠাতা রাজনীতিবিদরা সবসময় স্বৈরাচারী মনোভাব এড়িয়ে গেছেন। কিন্তু ট্রাম্পের মধ্যে স্বৈরাচার ভর করেছে। তিনি প্রেসিডেন্সির সীমা অতিক্রম করেছেন।

 

সর্বাধিক পঠিত