প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ‘আমি কষ্ট পাবো কেনো, শ্রীনিবাসনের মন্তব্য তো আমার বাবার বকুনির মতো’

স্পোর্টস ডেস্ক : [২] শরীর খারাপ ছিলো না, মনটাও বেশ চাঙা ছিলো। তার পরেও কি থেকে কি হয়ে গেলো সুরেশ রায়নার। আইপিএল খেলার উদ্দেশে আরব আমিরাতে গিয়ে ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে ভারতে ফিরে গিয়েছিলেন এই ব্যাটসম্যান। চেন্নাই সুপার কিংসের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল চলতি মৌসুমে আর পাওয়াই যাবে না এই অলরাউন্ডারকে। রায়নার ‘ব্যক্তিগত’ কারণ নিয়ে নানা গুঞ্জনের মধ্যে দলটির কর্ণধার এন শ্রীনিবাসন কড়া মন্তব্যে ক্ষোভও প্রকাশ করেছিলেন। এবার রায়না জানালেন, এই মৌসুমেই আবার দলের ক্যাম্পে যোগ দিতে পারেন তিনি।

[৩] ক্রিকেটওয়েবসাইট ক্রিকবাজের সঙ্গে সাক্ষাতকারে রায়না জানিয়েছেন, দেশে ফিরে কোয়ারেন্টিনে থেকেও অনুশীলন চালাচ্ছেন। এমনকি আবারও দলের সঙ্গেও যোগ দিতে পারেন তিনি।

[৪] মহেন্দ্র সিং ধোনির সঙ্গে আইপিএলের ফ্রেঞ্চাইজি চেন্নাই সুপার কিংসের ঘরের ছেলে হয়ে গিয়েছিলেন রায়না। সম্প্রতি ধোনির সঙ্গে একই দিনে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ছাড়ার ঘোষণা দেন। কিন্তু ৩৩ বছর বয়েসী এই অলরাউন্ডার আইপিএল খেলা নিয়ে কোন সংশয়ই ছিল না।

[৫] জৈব সুরক্ষিত পরিবেশে আইপিএল খেলতে দলের সঙ্গে দুবাই উড়ে যান রায়না। কিন্তু অনুশীলন শুরুর আগেই ‘ব্যক্তিগত কারণ’ দেখিয়ে ফেরেন দেশে। জানা যায় পাঞ্জাবের নিজের এলাকায় ডাকাতের হামলায় তার চাচা খুন হয়েছেন। তবে সেই কারণেই একেবারে পুরো মৌসুমের জন্যই সরে যাচ্ছেন, তা স্পষ্ট করেননি বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।

[৬] দলের ভেতর অভ্যন্তরীণ কোন বিষয় আছে কিনা তা নিয়েও গুঞ্জন চড়াও হয় গণমাধ্যমে। খবর বের হয়, দলের ‘বায়ো-সিকিউর’ বাবল নিয়ে হাঁসফাঁস করছিলেন তিনি, তার নাকি পছন্দ হয়নি হোটেল রুমও।

[৭] রায়নার এমন দলত্যাগ যে পছন্দ হয়নি, কড়া ভাষায় এরমধ্যেই জানিয়ে দেন ভারতীয় বোর্ডেও সাবেক সভাপতি শ্রীনীবাসন। রায়না ১৩ কোটি রুপি হারাতে চলেছেন বলেও জানান তিনি।

[৮] রায়না জানান, ব্যক্তিগত কঠিন এক পরিস্থিতির মধ্যেই তিনি দল ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন, একদম ব্যক্তিগত কারণে। তিনি বলেন, সিএসকেও আমার পরিবার, মাহি ভাই (ধোনি) আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ, এই সিদ্ধান্ত নেওয়া তাই কঠিন ছিল। শক্ত কারণ ছাড়া কেউই সাড়ে ১২ কোটি রুপি ছাড়তে চাইবে না। আমি হয়ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছি কিন্তু আমি এখনো তরুণ। আরও ৪-৫ বছর আইপিএল খেলতে মুখিয়ে আছি।

[৯] এভাবে আচমকা পুরো মৌসুমের জন্য দল ছেড়ে দেওয়ায় শ্রীনিবাসন যে ক্ষোভ জানিয়েছেন তা নিয়ে শীতল মনোভাব রায়নার। দল মালিকের ঝাঁজালো মন্তব্যকে তিনি বরং দেখছেন বাবার বকুনির মতো। রায়না বলেন, উনি আমার বাবার মতো। এবং আমার খুব কাছের লোক। উনিও আমাকে এভাবে দেখেন। উনি যা বলেছেন তা প্রাসঙ্গিক করা যাবে না। বাবা তার ছেলেকে বকাঝকা করতেই পারেন। উনি আসল কারণ জানেন না। এখন তাকে জানানো হয়েছে, তিনি ফিরতি মেজেসও পাঠিয়েছেন। – ক্রিকবাজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত