প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] উদ্বোধনের ৭ মাসেও চালু হয়নি শেরপুর জেলা হাসপাতালে নতুন ভবন

তপু সরকার: [২] উদ্বোধন করেই খালাস, উদ্বোধনের ৭ অতিবাহিত হলেও পুরোপরি কোন কার্যক্রম চালু হয়নি ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট শেরপুর জেলা হাসপাতালের নতুন ভবন। ফলে উন্নত চিকিৎসাসেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে জেলার প্রায় ১৬ লাখ মানুষ।

[৩] হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, নতুন ভবনটি করোনা হাসপাতাল হিসেবে ব্যবহার করায় চিকিৎসা সেবা কিছুটা ব্যাহত হচ্ছে।

[৪] চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করা হয় শেরপুর সদর হাসপাতালের ২৫০ শয্যার নতুন ৮ তলা ভবন। কিন্তু এখনো পুরোপুরি চালু হয়নি হাসপাতালটি।

[৫] ফলে বাধ্য হয়েই হাসপাতালের পুরাতন ৫০ শয্যার ভবনে চিকিৎসা নিচ্ছেন রোগীরা। বিছানা না পেয়ে মাটিতে থাকতে হচ্ছে অনেককে। ভোগান্তি কমাতে নতুন হাসপাতাল ভবনটি দ্রুত চালু করার দাবি জানিয়েছেন রোগী ও স্বজনরা।

[৬] জেলা সিভিল সার্জন জানালেন, শুরুতে সীমিত আকারে চালু করা হলেও পরবর্তীতে করোনা ইউনিট হিসেবে ব্যবহার করায় নতুন ভবনটিতে সাধারণ রোগীদের চিকিৎসা সেবা শুরু হয়নি। তবে চলতি মাসেই ভবনটিতে পুরোপুরি চালুর আশ্বাস দিলেন তিনি। সম্পাদনা: সাদেক আলী

যদিও স্থানীয়দের অভিযোগ, জনবল ও সরঞ্জাম সংকটে হাসপাতালটি চালু করতে না পেরে করোনাকে কারণ হিসেবে দেখাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। জনসাধারণের ভোগান্তি কমাতে পর্যাপ্ত লোকবল নিয়োগের পাশাপাশি দ্রুত নতুন ভবনটি চালু করার দাবি শেরপুরবাসীর।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত