প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বাংলাদেশের অর্থনীতি নিয়ে সবসময় গর্বিত ছিলেন প্রণব মুখার্জী, জানালেন ড. আতিউর রহমান

ভূঁইয়া আশিক রহমান: [২] বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক এই গভর্নর আরও বলেন, একাত্তরে ভারতের রাজ্যসভায় বাজেট সেশনে প্রণব মুখার্জি বলেছিলেন, বাংলাদেশ প্রশ্নে ভারত যেন হস্তক্ষেপ করে।

[৩] বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর তার সন্তানেরা যখন দিল্লিতে রাজনৈতিক আশ্রয়ে, তখন প্রণব মুখার্জি ও তার স্ত্রী স্নেহের সঙ্গে শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানাকে দেখাশোনা করতেন। পরবর্তী সময়ে যখনই দেখা হতো, জিজ্ঞেস করতেন- তোমাদের প্রধানমন্ত্রী ও তার বোন কেমন আছেন? এমনই ছিলো বঙ্গবন্ধু পরিবারের সঙ্গে তার সম্পর্ক।

[৪] তিনি বলেন, যখন রাজ্যসভার সদস্য ছিলেন, তখন বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে কাজ করেছিলেন। ভারতের বাইরে বহির্বিশে^ও ছুটে বেরিয়েছেন। বাংলাদেশের পক্ষে জনমত তৈরি করেছিলেন।

[৫] বাংলাদেশ, ভারত, শ্রীলঙ্কা ও নেপাল মিলে একটা গ্রুপ ছিলো, বিশ্বব্যাংকের বার্ষিক সাধারণ সভায় এ গ্রুপটাকে ভারতের অর্থমন্ত্রী হিসেবে প্রণব মুখার্জি রিপ্রেজেন্ট করতেন। বাংলাদেশের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলাদা করে বসতেন। আমাদের অর্থনীতির খোঁজখবর নিতেন। বাংলাদেশের ম্যাক্রো ইকোনোমিকস স্ট্যাবিলিটি ও ফাইন্যান্সিয়াল ইনক্লুশন সম্পর্কে জানতে চাইতেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর হিসেবে সেসব রিপোর্ট করতাম তাকে, বড় বড় ফোরামে গিয়ে তিনি বাংলাদেশের পক্ষে কথা বলতেন। সবসময় বলতেন, এতো চ্যালেঞ্জের মধ্যেও খুব ভালো করছে বাংলাদেশ।

[৬] বিশ্বব্যাংকের বিভিন্ন বড় ফোরামেও তিনি আমাদের প্রতিনিধিত্ব করতেন। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সাফল্যের কথা বলতেন এবং খুব প্রশংসা করতেন।

 

 

 

সর্বাধিক পঠিত