প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] লাদাখের বিরোধপূর্ণ এলাকা নিজেদের দখলে নেবার দাবি ভারতের

আসিফুজ্জামান পৃথিল: [২] লাদাখের দক্ষিণ প্যাঙগনের সব বিরোধপূর্ণ এলাকাই এখন ভারতীয় সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। চীনের সঙ্গে নতুন করে সংঘর্ষের পরের দিন এনডিটিভিকে এমন কথা জানিয়েছে ভারতীয় সেনাসদরের একটি সূত্র। এরইমধ্যে চুসেলে দ্বিতীয় দফায় দুদেশের কমান্ডার পর্যায়ের বৈঠক শুরু হয়েছে। এনডিটিভি

[৩] এই এলাকার বিভিন্ন রিজ বা গিরিতে নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করেছে ভারতের সেনারা। সেনাসদর বলছে, এটি চীনা আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ছিলো সম্পূর্ণ প্রতিরোধ উদ্যোগ। এতেই প্রতিষ্ঠা হয় ভারতীয় আধিপত্য।

[৪] এর আগে সোমবার ভারতীয় সরকারের তরফে বলা হয়, শনি ও রোববার রাতে চীনা সেনাবাহিনী একটি উস্কানিমূলক ও আগ্রাসী অভিযান পরিচালনা করেছে। তবে ভারতীয় সেনারা তাদের ঠেকিয়ে দিতে সক্ষম হয়েছে। তবে এই ব্যাপারে এখনও কিছুই বলেনি বেইজিং।
[৫] এই এলাকায় কোনও রাস্তা নেই। তবে বিপুল পরিমাণ চীনা সেনা প্যাঙগন লেকের দক্ষিণ অংশে মোতায়েন আছে। ভারত বলছে, চীনের উদ্দেশ্য ছিলো পুরো প্যাঙগন এলাকার দখল নেয়া।

[৬] এই মাসের শুরুতে গালওয়ান এলাকায় হাতাহাতিতে লিপ্ত হয় দুই দেশের সেনারা। এই ঘটনায় নিহত হন ভারতের এক কর্নেলসহ ২৩ সেনা সদস্য। সম্পাদনা: ইকবাল খান

সর্বাধিক পঠিত