প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সাত বছর লুকিয়ে থাকার পর মিসরে মুসলিম ব্রাদারহুডের শীর্ষ নেতা মাহমুদ এজ্জাত গ্রেফতার

রাশিদুল ইসলাম : [২] মিসরে মুসলিম ব্রাদারহুডের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারমান হিসেবে মাহমুদ এজ্জাত দায়িত্ব পালন করছিলেন। ২০১৩ সালে মুসলিম ব্রাদারহুডের আরেক শীর্ষ নেতা মোহাম্মদ বদিকে গ্রেফতারের পর মাহমুদ দলটির দায়িত্ব বুঝে নেন। জেরুজালেম পোস্ট

[২] মিসরের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় ৭৬ বছরের মাহমুদ এজ্জাতকে কায়রোর উত্তরে নিউ কায়রোর একটি এ্যাপার্টমেন্ট থেকে গ্রেফতারের কথা জানায়। ওই এ্যাপার্টমেন্ট থেকে বেশকিছু কম্পিউটার, মোবাইল ফোন ও দলটির বিভিন্ন নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগের বিস্তারিত তথ্য উদ্ধার করা হয়।

[৩] ২০১৩ সালে মুসলিম ব্রাডারহুডের একাধিক শীর্ষনেতা যাদের মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে তাদের অন্যতম হচ্ছেন মাহমুদ।

[৪] মুসলিম ব্রাদারহুডের পক্ষ থেকে মাহমুদকে গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা জানিয়ে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে দীর্ঘদিন ধরে মাহমুদ এজ্জাত জটিল রোগে ভুগছেন এবং তার ওপর নির্যাতন বিচারবহির্ভুত হত্যাকাণ্ডের শামিল।

[৫] মিসরের নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসি, সাবেক এমটি এসাম এল-এরিয়ানসহ একাধিক মুসলিম ব্রাদারহুড নেতা কারাগারে চিকিৎসার অভাবে মারা গেছে।

[৬] ২০১৩ সালে সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে মিসরের বর্তমান প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তা সিসি ক্ষমতায় আসেন এবং মুসলিম ব্রাদারহুড নেতাকর্মীদের ওপর নিষ্পেষণ শুরু করেন। ২০১৪ সালে সিসি প্রেসিডেন্ট হবার পর এপর্যন্ত মুসলিম ব্রাদারহুডের ৬০ হাজার নেতা-কর্মীকে কারাগারে আটক করা হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত