প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] যুক্তরাষ্ট্রের বিক্ষোভে দুজনের মৃত্যু পুলিশের গুলীতে হয়নি, সন্দেহভাজন খুনি আটক (ভিডিও)

সালেহ্ বিপ্লব: [২] ব্লেকের ওপর পুলিশের সাত রাউন্ড গুলীর ঘটনায় বিক্ষোভ চলছে উইসকনসিন অঙ্গরাজ্যের কেনোসা শহরে। কৃষ্ণাঙ্গ জ্যাকব ব্লেককে পুলিশ খুঁজছিলো ধর্ষণ ও পারিবারিক নির্যাতনের মামলায়। প্রায় পয়েন্ট ব্ল্যাংক রেঞ্জ, অর্থাৎ খুব কাছ থেকে এতোগুলো গানশট, এই বর্বরতা মেনে নেয়েনি শহরের মানুষ। ২৩ আগস্টের সেই ঘটনার প্রতিবাদ সহিংসতায় রূপ নেয় খুব দ্রুত। সর্বশেষ বুধবার, বিক্ষোভরতদের ওপর চোরাগোপ্তা হামলা হয়। ১৭ বছর বয়সের কাইল রিটেনহাউস সেই গুলীবর্ষণকারী বলে ধারণা করছে পুলিশ। তাকে হেফাজতে নেয়া হয়েছে। স্পুৎনিক

[৩] বিক্ষোভ ঠেকাতে স্থানীয় প্রশাসনকে সহায়তা করতে ন্যাশনাল গার্ডের ৫০০ সদস্য মোতায়েন করেন গভর্নর টনি এভারস। খুব একটা লাভ হয়নি, তৃতীয় দিনেও বিক্ষোভ দিন থেকে রাতে গড়ায়। পুলিশের দিকে এটাওটা ছুঁড়ে মারার পাশাপাশি এখানে ওখানে আগুন ধরায় শহরের মানুষ। পুলিশ নির্বিচারে টিয়ার শেল ছুঁড়তে থাকে। এক পর্যায়ে রাবার বুলেট। এরই মধ্যে গুলীবিদ্ধ হয়ে মারা যান দুজন, আহত আরো এক। ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল

[৪] এই ঘটনার পর কেনেসো শহরে ফেডারেল এজেন্টদের মোতায়েন করা হয়েছে ন্যাশনাল গার্ড ও স্থানীয় পুলিশের সঙ্গে। তরুণ রিটেনহাউস পূর্বপরিকল্পিতভাবে খুন করেছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। ইউএসএটুডে

[৫] ২৩ তারিখের ওই পুলিশী-তাণ্ডবের পর আইসিউতে নেয়া হয় জ্যাকব ব্লেককে। তার কোমর থেকে নিচের অংশ প্যারালাইসড হয়ে গেছে বলে তার বাবা জানিয়েছেন। ব্লেক আর হাঁটতে পারবেন কি না, তা নিয়ে এখনো সংশয়ে ডাক্তাররা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত