প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মালয়েশিয়া থেকে দেশে ফিরেছেন রায়হান কবির

ডেস্ক রিপোর্ট : আলজাজিরা টেলিভিশনের সাক্ষাতকারে মালয়েশিয়ায় আটকেপড়া অভিবাসীদের ওপর নিপীড়নের বর্ণনা দেয়ায় গ্রেফতার হওয়া সেই বাংলাদেশী রায়হান কবির দেশে ফিরেছেন। শুক্রবার গভীর রাতে মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে তিনি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেন। মালয়েশিয়ায় তার আইনজীবী সুমিতা কিসিনা সে দেশে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, শুক্রবার সন্ধ্যায় রায়হান কবিরকে পুত্রজায়ার ইমিগ্রেশন অফিস থেকে সরাসরি কুয়ালালামপুর বিমানবন্দরে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তাকে মালয়েশিয়ান এয়ারলান্সের ১১টার ফ্লাইটে তুলে দেয়া হয় যা রাত বারোটার পর ঢাকায় অবতরণ করে।

গত ২৪ জুলাই বিকেলে কুয়ালালামপুরের জালান পাহাংয়ের একটি কনডোমিনিয়াাম থেকে পুলিশ ও ইমিগ্রেশনের স্পেশাল ব্রাঞ্চের যৌথ অভিযানে তাকে গ্রেফতার করা হয়। মালয়েশিয়ায় বসবাসরত অভিবাসীদের প্রতি দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কর্তৃক চলতি লকডাউনে বৈষম্যমূলক ও বর্ণবাদী আচরণ করা হয়েছে বলে ‘লকড আপ ইন মালয়েশিয়া’স লকডাউন’ শিরোনামে ২৫ মিনিটের একটি ডকুমেন্টারি কয়েক সপ্তাহ আগে আলজাজিরা টেলিভিশনে প্রচারিত হয়। এই প্রতিবেদনটি প্রচারিত হওয়ার পর মালয়েশিয়া সরকার তীব্র নিন্দা জানিয়ে প্রতিবেদনকে ‘ভিত্তিহীন ও মিথ্যাচার’ অভিহিত করেছে। এ প্রতিবেদনে সাক্ষাতকার দিয়েছিলেন বাংলাদেশী রায়হান কবির। এরপর থেকেই তার প্রতি মালয়েশিয়া সরকার ক্ষুব্ধ হয়। পরে রায়হান কবিরের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে মালয়েশিয়া সরকার। তার খোঁজ দিতে জনসাধারণের সহায়তা চেয়ে একটি নোটিস জারি করে দেশটির অভিবাসন বিভাগ। সেই সঙ্গে তার ওয়ার্ক পারমিটও (ভিসা) বাতিল করা হয়। এরপর তাকে গ্রেফতারের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১৪ দিনের রিমান্ডে নেয় মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগ। মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমির হামজা জয়নুদ্দিনকে উদ্ধৃত করে এ তথ্য জানিয়েছে বিভিন্ন গণমাধ্যম। তখন রায়হান কবিরকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠােেনার আশ্বাস দেয় মালয়েশিয়া।

রায়হান কবিরের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত