প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] এডিস মশা মারতে জিন পরিবর্তিন করা মশা ছাড়ছে যুক্তরাষ্ট্র

সিরাজুল ইসলাম: [২] ২০২১-২২ সালে ফ্লোরিডায় এ মশা ছাড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। পরীক্ষামূলক প্রকল্পে কয়েক মিলিয়ন এ ধরনের মশা ছাড়া হবে। ইয়ন

[৩] প্রাণঘাতী জিকা, ডেঙ্গু, চিকন গুনিয়া ও হলুদ জ্বর সৃষ্টিকারী ভাইরাস বহন করে এডিশ মশা। ওএক্স ৫০৩৪ নামের জিন পরিবর্তিত মশা সন্তান উৎপানকারী স্ত্রী মশা ও লার্ভা মেরে ফেলবে। অর্থাৎ মশা বড় হয়ে কামড়ানো বা রোগ ছড়ানোর আগেই মারা যাবে। স্ত্রী মশা মানুষকে কামড়ায় ডিম ফোঁটানোর জন্য প্রয়োজনীয় রক্ত নিতে। পুরুষ মশা রোগ ছড়ানোর জন্য দায়ী নয়। পরিবর্তিত মশা ছাড়ার ৭২ ঘণ্টা আগে জানাতে বলা হয়েছে। স্ত্রী মশা মেরে ফেলার জন্য ১০ সপ্তাহ সময় লাগবে।

[৪] ২০২১ সালের শুরুতে টেক্সাসের হেরিস কাউন্টিতেও জিন পরিবর্তিত মশা ছাড়ার অনুমোদন দেয়া হয়েছে। ব্রিটিশ কোম্পানি এ মশা তৈরি করেছে। দীর্ঘ বছরের পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে পরিবেশ প্রতিরক্ষা এজেন্সি এ মশা ছাড়ার অনুরোধে সায় দিয়েছে। সাত দফা পরীক্ষা শেষে জুনে ফ্লোরিডা এ মশা ছাড়ার অনুমতি দেয়।

[৫] সব শ্রেণির মশার ১ শতাংশ এডিস। ফ্লোরিডার মশা মারার বাজেট বছরে এক মিলিয়ন মার্কিন ডলার।

[৬] জিন পরিবর্তিত অপর মশা ওএক্স ৫১৩ ক্যামান দ্বীপ, পানামা ও ব্রাজিলে পরীক্ষা করা হয়েছে। এতে সফলতাও এসেছে বলে দাবি করেছে সংশ্লিষ্টরা।

[৭] পরিবেশবাদীরা উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, পরিবর্তিত মশার কারণে প্রাণি জগতে বিরূপ প্রভাব পড়তে পারে। কারণ অনেক পাখি ও পোকামাকড়ের খাবার হলো মশা। তারা এ মশা খেলে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।

 

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত